Browsing Category

জানার আছে অনেক কিছু

সঠিক সময়, সঠিক খাদ্যভ্যাস।

আপনার  সুস্থতা অনেকটাই নির্ভর করে আপনার খাদ্য অভ্যাসের উপর। রোজ পরিমিত খাবার, সঠিক সময়ে খেলে আপনি শারীরিক ভাবে থাকবেন ফিট। দৈনন্দিন জীবনে খাবার খাওয়ার সঠিক সময়, ও সঠিক খাদ্যভাস নিয়েই আমাদের এই আর্টিকেলটি। সকালের নাস্তা থেকে শুরু করে রাতের খাবার পর্যন্ত আপনাকে নিয়ম মেনে ঠিক খাবারগুলো খেতে হবে।চলুন জেনে নেই বিস্তারিত। সকালের খাবার : প্রতিদিনের খাবারের ভেতর সকালের খাবার বা ব্রেকফাস্ট হচ্ছে, সবচেয়ে গুরত্বপূর্ণ ব্যাপার। সকালে ঘুম থেকে উঠেই প্রথমে এক গ্লাস বা দেড় গ্লাস

প্রতিদিন অন্তত ত্রিশ মিনিটের ব্যায়াম কেনো জরুরী,জেনে নিন।

শারীরিক কসরত বলুন বা ব্যায়াম বলুন এটি আপনার শরীরের জন্য যে কতটুক জরুরী তা নিশ্চয় আপনার অজানা নয়। প্রতিদিন অন্তত ত্রিশ মিনিটের ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ সবার জন্যই অনেক গুরত্বপূর্ণ। চলুন খুব সংক্ষিপ্ত আকারে দেখে নেই ,আপনি প্রতিদিন ত্রিশ মিনিটের ব্যায়ামের মাধ্যমে কিভাবে উপকৃত হবেন। হার্টের সুস্থতা : হৃদপিন্ডের সুস্থতা নিশ্চিত করতে পারে ফ্রি হ্যান্ড এক্সাইসাইজ। প্রতিদিন যদি আপনি আর কিছু করতে না পারেন তবে অন্তত ৩০-৪০ মিনিট হাটার চেষ্টা করুন। যেকোন ধরনের হালকা এক্সারসাইজ আপনার

চুলের কোমলতা ও মসৃনতা ধরে রাখতে ঘরোয়া কিছু উপাদান।

চুলের যত্নে কি করছেন আপনি?  সপ্তাহে দু দিন তেল?  উহু, এই যথেষ্ট নয়। অযত্ন আর অবহেলায় আপনার প্রাণবন্ত চুল হারাতে পারে এর প্রাণ। চুল খসখসে হয়ে যাওয়াটা ও খুব সাধারন একটা ব্যাপার। প্রাকৃতিক ভাবে চুলের কোমলতা ধরে রাখবে ঘরোয়া কিছু উপাদান। চলুন জেনে নেই বিস্তারিত…. ১: মেয়োনিজ : আমাদের ঘরে প্রায় সবসময়ই এই উপাদানটা থাকে। চুলের কোমলতা ধরে রাখতে দারুণ কাজের এই উপাদানটি। দু টেবিল চামচ মেয়োনিজ ( চুল বড় হলে প্রয়োজনে আরেকটু বেশি দরকার

বেদানা বা ডালিমের গুণাগুণ

বেদানা, আনার বা ডালিম একরকমের ফল। এর ইংরেজি নাম ‘পমিগ্রানেট’। হিন্দি, উর্দু, ফার্সি ও পশতু ভাষায় একে আনার বলা হয়। কুর্দি ভাষায় ‘হিনার’ এবং আজারবাইজানী ভাষায় একে ‘নার’ বলা হয়। সংস্কৃত এবং সংস্কৃত এবং নেপালি ভাষায় একে বলা হয় ‘দারিম’। বেদানা গাছ গুল্ম জাতীয়, ৫ থেকে ৮ মিটার পর্যন্ত লম্বা হয়। পাকা ফল দেখতে লাল রঙের হয়। ফলের খোসার ভেতর স্ফটিকের মত দানা দানা থাকে। সেগুলো খাওয়া হয়। এর আদি নিবাস ইরান এবং ইরাক। ককেশাস

পান্ডান পাতা

প্রকৃতির আশির্বাদ পান্ডান পাতা

প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও সৌরভ সুগন্ধির জন্য বালির আলাদা কদর আছে। দেশের বাইরে যাওয়ার কল্পনা করলেই বালি থাকে শীর্ষস্থানে। ভিসার ঝামেলা নেই আর সঙ্গে অনাবিল পাহাড়, সমুদ্র, ফুল একেবারে প্রকৃতির কাছে চলে যাওয়া। ইন্দোনেশীয়ার ডেজার্টের সময় টেবিলের সৌন্দর্য বাড়িয়ে দেয় হাল্কা ও গাঢ় সবুজ রকমারি মিষ্টান্ন। আমরা সবাই মোটামুটিভাবে আর্টিফিশিয়াল ফুডকালার, সুগারের নানারকম ক্ষতিকর দিকগুলো জানি। কিন্তু ইন্দোনেশিয়ার ডেজার্টগুলোর কিছু ভিন্নতা রয়েছে, যা তৈরি হয় ফল ও পাতা দিয়ে। হ্যা ফলের যে ফ্রুক্টোজ রয়েছে তাই মিষ্টি

মাত্র ১ সপ্তাহে পেটের মেদ  কমান

পেটের মেদ নিয়ে অনেকেরই চিন্তার কোন শেষ নেই। পেটের জমে থাকা অতিরিক্ত মেদ   বা চর্বি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক অনেক ক্ষতিকর । আর তাই এই মেদ কমাতে প্রতিদিন আমরা কত কিছুই না করছি। মেনে চলতে হচ্ছে খুব কঠিন নিয়ম-কানুন, ব্যায়াম, ডায়েট আরো কত কি। অনেকেই আছেন যাদের ফিগার, বডি ফিটনেস ভালো। কিন্তু পেটে মেদ জমে গেছে, তাই শাড়ি বা শার্ট যাই পরা হোক না কেন দেখতে খারাপ দেখা যায়। তাদেরও এই মেদ কমানো নিয়ে চিন্তার শেষ নেই। কিন্তু এইভাবে আর কত দিন চলে বলুন,

আনারসের অজানা কথা

­আনারস ফলটি সবার পরিচিত । এটি আমাদের দেশের খুবই সহজলভ্য এবং সুলভমূল্যে পাওয়া যায় এমন একটা ফল। এটি এক ধরনের গুচ্ছ ফল। আনারসের প্রথম চাষ হয় দক্ষিণ আমেরিকায়। তবে বর্তমানে এই ফলটি প্রায় সব দেশেই ব্যাপকভাবে চাষ করা হচ্ছে এর স্বাদ এবং পুষ্টিগুণ এর জন্য। এই ফলটিতে আছে বিভিন্ন পুষ্টিকর  উপাদান, যেমন – ভিটামিন, মিনারেলস, খাদ্যআশ ইত্যাদি।  এই ফলটি খেতে খুবই রসালো, টক – মিষ্টি এবং এতে থাকা পানি শরীরে তৃপ্তিকর অনুভূতি দান করে। আনারসে  অধিক  পরিমাণ ভিটামিন এ, সি, ফসফরাস, ক্যালসিয়াম এবং পটাশিয়াম বিদ্যমান । এসব ছাড়াও আনারসে অধিক পরিমানে ক্যালোরী বিদ্যমান। এই ফলটি কোলেস্টেরল ফ্রি এবং চর্বিমুক্ত। স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য এ ফলের জুড়ি মেলা দায়। এখন আনারসের মৌসুম চলছে। আর তাই এই গরমে আপনার প্রতিদিনের খাবার তালিকায় আনারস রাখুন। এবার তাহলে চলুন দেখা নেয়া যাক এই ফলটির বিভিন্ন  গুণাগুণ  গুলো – আনারসের পুষ্টিগুণ : শরীরে পুষ্টির যোগান দেয় : আনারসে রয়েছে শরীরে পুষ্টির যোগান দেয়ার খুব বড় একটি অংশ । এই ফলটিতে আছে খুব বেশি পরিমানে ভিটামিন

ব্ল্যাকহেডস দূর করবে নারিকেল তেল!

ত্বকের যত্নে নারিকেল তেল এর আবেদন কখনো ফুরাবে না। খাঁটি নারিকেল তেল যে ত্বকের জন্য কতটা উপকারী তা আমাদের কারো অজানা নয়। তবে আপনি জানেন কি?  নারিকেল তেল ত্বকের ব্ল্যাকহেডস দূর করতেও খুব কার্যকরী। জেনে নিন কিভাবে, নারিকেল তেলের মাধ্যমে ব্ল্যাকহেডস দূর করবেন। ১: স্টিম পদ্ধতি : এই পদ্ধতি ব্ল্যাকহেডস দূর করতে ভালো কাজ করে। একটি পাত্রতে গরম পানি নিন। সামান্য দূর থেকে মুখে গরম পানির ভাপ নিন ৫-৭ মিনিটের মতো। এতে মুখের লোমকূপ গুলো

শুষ্ক ত্বকের হোম মেইড ফেইস প্রাইমার

শুষ্ক ত্বকের হোম মেইড ফেইস প্রাইমার

আমরা অনেকেই আসলে জানি না প্রাইমার ( ফেইস প্রাইমার ) কি? বিশ্ব জুড়ে নারীরা শখে কিংবা প্রয়োজনে মেকআপ করেন। প্রাইমার আপনার শখের বা প্রয়োজনের মেকআপ কে নিখুত ও মসৃণ  করে, মেকআপ ভালভাবে সেট করে, মেকআপ কে অনেকক্ষণ  স্থায়ী রাখে, বিশেষ করে আমার মত  শুস্ক ত্বকের অধিকারীদের মেকআপ ফেটে যাবার  ভয় থাকে না প্রাইমার ব্যবহারে। শুষ্ক ত্বকের জন্য উপকারী ফেইস প্রাইমার যা যা লাগবে: আ্যালোভেরা জেল ১ টে.চা. ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম ১  টে.চা. ভিটামিন-ই ক্যাপসুল ১/২ টি। আমন্ড

নেল-পলিশ ছাড়ান রিমোভার ছাড়াই!

সাজতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ কি আজকের এই দুনিয়ায় খুব একটা বেশি আছেন! সাজ নিয়ে যাদের শৌখিনতার শেষ নেই তাদের জন্য অতি প্রিয় একটি সাজ প্রসাধন হলো নেল-পলিশ। অনেক সময় ঘরে এই রিমোভার থাকে না। তো, কিভাবে নখের নেল-পলিশ উঠানো যায়? হ্যা,রিমোভার ছাড়াও নেল-পলিশ ছাড়ানোর জন্য রয়েছে কিছু ন্যাচারাল পদ্ধতি। চলুন দেখে নেওয়া যাক এক নজরে….. ১: টুথপেস্ট: ঘরে টুথপেস্ট তো সবসময়ই থাকে। আপনি ইচ্ছা করলে খুব সহজেই টুথপেস্ট দিয়ে নেল-পলিশ রিমোভ করতে পারেন।