Browsing Tag

অন্যান্য

ভ্রমণে প্রয়োজনীয় কিছু টিপস

আমাদের অনেকেই ট্রাভেল করতে খুবই পছন্দ করি। ভ্রমন পিপাসু মানুষেরা একটু ছুটি পেলেই বেড়িয়ে পরেন ঘুরতে। কিন্তু অনেক সময় বেড়াতে গিয়ে দেখা যায় প্রয়োজনীয় কোন জিনিস হয়তো আনা হয়নি, অথবা নতুন কোন জায়গায় গিয়ে কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলে হয়তো পুরো ট্যুর টাই মাটি হয়ে যায়। তাই আজ আপনাদের জানাবো এমন কিছু টিপস, যেগুলো জানা থাকলে আপনার ভ্রমন হবে আরো আনন্দময়। তাহলে চলুন দেখে নেই টিপস গুলো –     # ট্রাভেলের আগে : বাজেট আপনার বাজেট যাওয়ার আগেই ঠিক করে নিন। কোথায় বেড়াতে যাবেন সে অনুযায়ী বাজেট ঠিক

অবসর সময় কাটানোর সেরা কিছু উপায়।

নাগরিক জীবন মানেই ব্যস্ততা। যেনো ব্যস্ত এ জীবনে এক টুকরো অবসর সময়ের বড্ড অভাব। সামান্য অবসর সময় পেলে আমরা সেই সময়টাকে অনীহা করে থাকি।কিন্তু আমরা কি জানি? যেই সামান্য সময়টুকু কাজে লাগিয়ে আমরা খুঁজতে পারি যাযাবার জীবনের অর্থ! একটু প্রাণ খোলে নিঃশ্বাস নিতে পারি! চলুন না আজ জেনে নেই, কিভাবে অবসর সময়টাকে অপচয় না করে,  আপনি তা যথাযথ ভাবে কাজে লাগাতে পারেন। আজ দেখে নিবো স্বল্প কিছু মাধ্যম যা আপনার অবসর সময়টাকে একই সাথে উপভোগ্য

জিনিস একই কিন্তু,ব্যবহার ভিন্ন !

আপনি জানেন কি?  আপনি নিত্যদিন যে সকল জিনিস ব্যবহার করছেন, তাদের রয়েছে ভিন্নরকম ব্যবহার। আপনি সেই সব সাধারণ জিনিসের, অন্যরকম ব্যবহার জেনে অবাক হবেন। আজ চলুন দেখে নিই কি সেই জিনিসগুলো, আর কিভাবে তা অন্যভাবে ব্যবহার করা যায়! ঘরোয়া কিছু জিনিস, যা সবসময় আমার আপনার হাতের কাছেই আছে, এই জিনিসগুলো আপনি অনেক ক্ষেত্রে কাজে লাগাতে পারেন একটু ভিন্নভাবে। দেখে নিন বিস্তারিত… ১: নিউজপেপার : কাঁচের আয়না, চকচকে করতে নিউজপেপার বেশ কার্যকরী। একটি ভেজা কাপড় দিয়ে

ঈদে খাবার টেবিল সাজান মনের মতো করে !

আর হাতে বেশি সময় নেই, প্রায় দরজায় এসে দাড়িয়েছে ঈদ-উল-আযহা। সাজ পোশাকে এই ঈদে তেমন একটা গুরত্ব না দিলেও খাবারে প্রতি দিতে হয় বাড়তি নজর। তাই বাদ যায় না খাবার টেবিলটাও। এই ঈদে কিভাবে আপনার খাবার টেবিলটাকে একটু ভিন্ন লুক দেওয়া যায় তাই দেখে নিন। 👉 টেবিলে রানার , ম্যাট ব্যবহার করলে খুব ভালো দেখায়। একই রঙের ম্যাট ও রানার বা বিপরীত রঙা রানার ও ম্যাট ব্যবহার করতে পারেন। 👉 টেবিলে যখন খাবার পরিবেশন করবেন

এই ঈদে চাই বাড়তি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা।

একদিন পরই ঈদ। এই ঈদে কোরবানির কারণে একটু বেশিই ব্যস্ত থাকতে হয় , কিন্তু মাথায় রাখতে হবে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার ব্যপারটাও। ঈদ-উল আজহায় কিভাবে চারপাশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা যায় তা নিয়েই আমাদের এবারকার আয়োজন। মাংস ভাগ বন্টনের সময় অবশ্যই গ্লাভস পড়ে নিন। এতে আপনার হাত অন্তত জীবাণু মুক্ত থাকবে। গ্লাভস পড়তে না চাইলে অবশ্যই প্রতিবার মাংস নাড়া পর সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিতে হবে। মাংস বন্টনের সময়, অনেক সময় কাপড়ে, মাটিতে বা চোখে মুখে রক্তের ছিটা

হতাশা ভুলে, বাঁচুন নতুন করে!

  সুন্দর ও রঙীন জীবনটাকে, সাদাকালো চোখে দেখার জন্য বেশি কিছু লাগে না, ব্যাস একটু বিষন্নতা বা অবসাদের ছোঁয়াই যথেষ্ট। যাকে এক কথায় বলতে  পারেন “ডিপ্রেশন “। ড্রিপেশনের প্রথম ধাপ , বিষাদ বা অবসাদ ! নিজেকে ঘিরে হীন্নমন্যতা। যখন মাত্রাতিরক্ত বিষন্নতা কাউকে ঘ্রাস করে ফেলে, তখন তার বেঁচে থাকাটাই যেনো অনেকটা মূল্যহীন হয়ে পড়ে। অনেকেই হতাশা থেকে বেছে নেন অত্মহত্যার পথ। দৈনন্দিন জীবনে নানান কারণে সৃষ্টি হতে পারে ডিপ্রেশন। ডিপ্রেশন কি ? সহজ ভাষায় চরম

লেবুর খোসা ফেলনা নয় !

লেবু, নিত্যদিনের আহারে একটু লেবুর রস না মেশালে যেনো আহার পূর্ণতাই পায় না। তবে অবহেলার শিকার হয় লেবুর খোসা। এই লেবুর খোসাতেও কিন্তু আছে দারুণ সব জাদুকরীয় গুণাগুণ ! যা অনেকটা অবাকই করবে আপনাকে । চলুন না এক ঝলক দেখে নেই লেবুর খোসার উপকারীতা বা ভিন্নধর্মী ব্যবহার। ১: পুডিং তৈরীতে: ভাবছেন নিশ্চয় পুডিং তৈরীতে কি এমন বিশেষ কাজে আসবে লেবুর খোসা ! কিন্তু আপনি জানেন কি সামান্য লেবুর খোসাই আপনার পুডিংটাকে করে তুলতে পারে আরেকটু

এই গরমে , নিজের যত্ন।

আবহাওয়া ভীষন বৈরী মনে হচ্ছে না ? বাইরের তাপমাত্রা যেনো উঠে পড়ে লেগেছে আপনার আমার বিরুদ্ধে। এই তীব্র গরমে নিজের প্রতি একটু বাড়তি যত্ন নিন। চুল , ত্বক এবং অবশ্যই নিজের শরীরের প্রতি নিতে হবে বাড়তি যত্ন। চলুন তবে আজ দেখে নেই কিভাবে ভালো থাকা যায়। এই গরমে। গরমে হিট স্ট্রোক বা শরীর খারাপ হওয়াটা খুব স্বাভাবিক ব্যাপার। তাই খেয়াল রাখুন এই বিষয়গুলো.. 👉 সাত সকালেই চোখে ধরা পড়ে রোদের তীব্রতা, সকালের শুরুটা চা বা

নিজ হাতেই বানান প্রাকৃতিক ড্রাই শ্যাম্পু।

আপনার প্রিয় চুলের মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে ক্যামিকেল। তাই ক্যামিকেলের হাত থেকে চুল বাঁচাতে নিজেই ঘরেই তৈরী করে নিতে পারেন ড্রাই শ্যাম্পু। দেখে নিন কিভাবে…. যা যা লাগবে : বেকিং সোডা তিন টেবিল চামচ। বেবি পাওডার তিন টেবিল চামচ। কর্নফ্লাওয়ার তিন টেবিল চামচ। সবগুলো উপকরণ একসাথে মিশিয়ে নিলেই তৈরী হয়ে যাবে ড্রাই শ্যাম্পু। আপনার কাছে কোন উপকরণ না থাকলে অন্য টি দিগুণ ব্যাভার করে নিলেই হবে। ধরা যাক, আপনার কাছে বেবি পাওডার নেই, এক্ষেত্রে বেকিং

সোশ্যাল সাইট ব্যবহারের আদবকেতা।

আজকাল হাতের সেলফোনের মাঝেই জগত! বলছি সোশ্যাল সাইটগুলোর কথা । এই সোশ্যাল সাইটগুলো যোগাযোগকে করে তুলেছে খুব সহজ। তবে এসব সাইটগুলো ব্যবহারের রয়েছে কিছু আদবকেতা। ফেসবুক , টুইটার ইনস্টাগ্রাম সব কিছুই আছে একদম আপনার হাতের কাছেই। তবে এগুলো ব্যবহারে হতে হবে সচেতন। নয়তো এগুলো আপনার পারসোনালিটি ও নিরাপত্তার জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে। ১: যেকোন যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের ঠিকানা, ফোন নাম্বার বা পারসোনাল ইনফরমেশন দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। ২: ফেসবুকের স্ট্যাটাস বা আপনার করা টুইটে কখনোই