Browsing Tag

ঘরের সৌন্দর্য্য মূলক টিপস

সুরভিত ও সতেজ ঘর

সুরভিত ও সতেজ ঘর

ঘর সুরভিত বা সুগন্ধে সতেজ থাকুক তা আমরা কে না চাই! এলো শীত। শীতে বাহিরের অতিরিক্ত ঠান্ডা থেকে বাচিয়ে ঘরকে উষ্ণ রাখতে আমরা দিনের বেশিরভাগ সময়টাই দরজা জানালা বন্ধ করে ঘরে বাইরের আলো বাতাস চলাচল বন্ধ রাখি। এতে ঘরের ভেতরটায় এক গুমোট ব্যাপার বিরাজ করে। আর এতে সতেজ গন্ধটাও অনুভূত হয়না। অথচ আমরা চাই ঘর থাকুক উষ্ণ এবং সুরভিত। এছাড়াও বিভিন্ন কারণে আমাদের ঘরে দুর্গন্ধ অনুভূত হয়ে থাকে। ঘরের এই দুর্গন্ধ পরিবারের মানুষজনের জন্যে যেমন

শোবার ঘরটি হোক সুন্দর

আপন বাসস্থান টি বড় হোক বা ছোট, সবারই নিজের ঘরের প্রতি অন্যরকম একটা মায়া কাজ করে। আর শোবার ঘরের কথা যদি বলি তাহলে বলতে হয়, এই ঘরটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। কারন  সবাই সারাদিনের কাজকর্ম সেরে এসে শোবার ঘরেই গা এলিয়ে দেয়। আর সারাদিনের পরিশ্রমের পর যদি বাসায় এসে দেখা হয় সব অগোছালো তাহলে কিন্তু কারোরই ভালো লাগে না। আর তাই আপনিও  সাজিয়ে গুছিয়ে রাখতে পারেন আপনার প্রিয় শোবার ঘরটিকে। ঘর পরিপাটি থাকলে মনটাও ভালো থাকে। তাহলে চলুন দেখে নেই কি কি উপায়ে আপনি আপনার শোবার ঘরটি সুন্দরভাবে গুছিয়ে রাখতে পারেন – শোবার ঘরের আকার আমাদের শোবার ঘরগুলি সাধারণত ১০ ফিট বাই ১২ ফিট হয়ে থাকে। কেউ কেউ ১১ ফিট বাই ১৩ ফিট আবার কেউ কেউ ১২ ফিট বাই ১৪ ফিট ও তৈরি করেন। বর্তমানে এই মাপগুলিতেই শোবার ঘর গুলো তৈরি হয়ে থাকে। তবে আকার যেমনই হোক না কেন, ঘরটিকে সাজিয়ে গুছিয়ে রাখা টা আপনার একান্ত ইচ্ছা আর রুচির উপর নির্ভরশীল। কারন ছোট বা বড় ঘর যাই হোক না কেন আপনি আপনার সামর্থ অনুযায়ী সেটাকে সাজাতে পারেন। ঘর ছোট হলে আপনি ছোট ছোট বা অল্প কিছু আসবাবপত্র দিয়ে আপনি ঘরটি সাজাতে পারেন। তবে শোবার ঘরটিকে যদি পারফেক্টলি এবং খুব সুন্দর করে সাজাতে চান তাহলে আপনার ঘরের আকার হতে হবে ১৪

নষ্ট বাল্ব

ঘরের সৌন্দর্যে নষ্ট বাল্বের পাঁচ ব্যবহার

ঘরের সৌন্দর্যে নষ্ট বাল্বের পাঁচ ব্যবহার।বাল্ব নষ্ট হয়ে গেলে বা ফিউস হয়ে গেলে আমরা তা ফেলে দেই।এতে পরিবেশ নোংরা করা ছাড়া তেমন কিছু হয় না। কিন্তু কিছু পদ্ধতি ব্যবহার করে আমরা এই নষ্ট বাল্বকে পুনঃব্যবহার যোগ্য করে তুলতে পারি। তো এই কাজের জন্য আমাদের একটি কাজ সবসময় শুরুতে করার প্রোয়জন পরবে। আর এই কাজটি হলো বাল্বের পিছনের দিকে ছিদ্র করে ভেতরের সবকিছু পরিষ্কার করা। শুরুতেই আমরা এই ব্যপারে যেনে নিব।এই কাজটি খুবই সাবধানতার সাহায্যে করতে

ফেয়ারী জারে ঘরের সৌন্দর্য

ছবিটি দেখেই বুঝতে পারছেন কতটা আকর্ষনীয় ও সুন্দর এই ফেয়ারী জার টি। ঘরের সৌন্দর্য্য বর্ধনে বা প্রিয়জনকে কোনো বিশেষ দিনে গিফট দিয়ে চমকে দিতে এর জুরি নেই। এতো সৌখিন ও সৌন্দর্যমন্ডিত ডেকোরেটিং পিস চোখের সামনে থাকলেও মন ভাল হয়ে যায়। ঘরের শোভা বৃদ্ধির জন্য অনায়াসেই ব্যবহার করতে পারেন।অথচ খুবই সাধারন কিছু মেটেরিয়ালস দিয়ে খুব কম সময়েই আপনি বানিয়ে নিতে পারেন অসাধারণ এই জিনিসটি। আপনাদের বুঝার সুবিদার্থে আমি আমার করা একটি টিউটোরিয়াল ভিডিও ও আর্টিকেলে এড করে দিয়েছি।

আপনার গৃহের সৌন্দর্য

নিজ গৃহ ,ছোট একটা শব্দ তবে এতেই লুকিয়ে আছে বিশাল একটা শান্তি। কত সপ্ন সুখ শান্তি জড়িয়ে থাকে একটি ঘর কে ঘিড়ে তা একজন গৃহকর্তা বা কএী জানেন শুধু ।আপনি দেশ বিদেশ ঘুরেই আসুন আর কোটি টাকার বিলাসবহুল বাড়িতে থাকুন।সব শেষে যে নিজ আবাসেই সব শান্তি খোঁজে পান তা অস্বীকার করতে পারবেন না। অফিসের ক্লান্ত সময় কি স্কুল/কলেজ সব শেষে একটুখানি প্রশান্তি খোজেঁ ফেরেন আপন গৃহে।অনেকের ই ভুল ধারনা যে ঘর কে সুন্দর করে সাজাতে