Browsing Tag

টিপস

যত্নে থাকুক প্রিয় গহনাটি

নারীর অন্যতম একটি সাজ অনুষঙ্গ হলো গহনা। গহনার প্রতি নারীদের দুর্বলতা সবসময়ের। গহনা ছাড়া নারীর সৌন্দর্য্যের যেন অপূর্ণতা রয়ে যায়। সোনা, রূপা, হীরার গহনার সাথে সাথে বর্তমান সময়ের পার্ল, কাঠ, মাটি সহ বিশেষকরে জার্মান সিলভারের গহনার বেশ ভাল একটা ট্রেন্ড চলছে। শুধু গহনা পছন্দ আর সজ্জা করলেই তো চলবে না, জানতে হবে গহনার যত্নও। আর তাই ভাবছি, আজ কথা বলব জার্মান সিলভারের গহনার যত্ন-আত্নি নিয়ে। পছন্দের গহনা কিনে কিনে প্রায় সব নারীরই গহনার এক বড়সড় সংগ্রহ

সুরভিত ও সতেজ ঘর

সুরভিত ও সতেজ ঘর

ঘর সুরভিত বা সুগন্ধে সতেজ থাকুক তা আমরা কে না চাই! এলো শীত। শীতে বাহিরের অতিরিক্ত ঠান্ডা থেকে বাচিয়ে ঘরকে উষ্ণ রাখতে আমরা দিনের বেশিরভাগ সময়টাই দরজা জানালা বন্ধ করে ঘরে বাইরের আলো বাতাস চলাচল বন্ধ রাখি। এতে ঘরের ভেতরটায় এক গুমোট ব্যাপার বিরাজ করে। আর এতে সতেজ গন্ধটাও অনুভূত হয়না। অথচ আমরা চাই ঘর থাকুক উষ্ণ এবং সুরভিত। এছাড়াও বিভিন্ন কারণে আমাদের ঘরে দুর্গন্ধ অনুভূত হয়ে থাকে। ঘরের এই দুর্গন্ধ পরিবারের মানুষজনের জন্যে যেমন

ঝকঝকে স্টিলের থালাবাটি

ঝকঝকে স্টিলের থালাবাটি

স্টিলের থালাবাটি ঝকঝকে তকতকে রাখতে কে না চায়! ঘরে অতিথি এলে এখনকার সময়ে নতুন ট্রেন্ড হলো বাঙালীর গ্রামবাংলার আদলে মাটির এবং স্টিলের বাসনকোসনে খাবার সার্ভ করা। কিন্তু বেশীরভাগ সময়েই যে্টা হয়, স্টিলের থালাবাটি ঠিকভাবে পরিষ্কার করে না রাখাতে বা ঠিকভাবে সংরক্ষন না করার ফলে এর গ্লেজ নষ্ট হয়ে যায়। ঝকঝকে ভাবটা হারিয়ে যায়। যেটা নিজের কাছেও ভাল লাগেনা আর অতিথির সামনে তো আরো আগেই না(মাটির তৈজসপত্র নিয়ে পরবর্তী আর্টিকেলে লিখা হবে)। আবার দীর্ঘদিন ব্যবহার করার

মনযোগী-হবার-৬-টিপস

মনযোগী হবার ৬ টিপস

পড়াশুনা বা কর্মক্ষেত্রে এমনকি ঘরের কাজেও মনযোগী হওয়াটা জরুরী। মনযোগ দিয়ে কাজ না করলে পরিপূর্ণভাবে কাজ সম্পন্ন হয় না। আবার অমনযোগী কাজে অনেক সময়ও লাগে। এরফলে পরবর্তী কাজে গাফলতি দেখা যায়।যেকোন ক্ষেত্রে মনযোগী হবার জন্য কিছু উপায় অবলম্বন করতে হয়।এরজন্য কিছু টিপস ফলো করলে কাজটা সহজ হয়ে যায়। চটপটের লেখার মাধ্যমে প্রতিনিয়ত চেস্টা করে যাচ্ছে তাদের পাঠকদের জীবনযাপনকে সহজ ও সুন্দর করতে।আর তাই আজকের আয়োজন মনযোগী হবার ৬ টিপস। টিপসঃ১ পর্যাপ্ত ঘুম রাতে পর্যাপ্ত ঘুম

বর্ষাকালের ত্বকের যত্ন ৭ টিপস

বর্ষাকালের ত্বকের যত্ন ৭ টিপস

বর্ষাকালে আমরা অনেকেই দুশ্চিন্তামুক্ত হয়ে যাই যে এখন তো গরম কম ধুলাবালিও কম। ফলে ত্বকের তেমন যত্ন না নিলেও চলবে। কিন্তু এই বৃষ্টির দিনে ত্বকের প্রধান সমস্যা হয়ে দাঁড়ায় আর্দ্রতা থেকে দূরে থাকা। আবহাওয়ায় ড্যাম্পভাব বা আর্দ্রতা থাকায় সেটা আমাদের ত্বকের উপরও প্রভাব ফেলে। এরফলে ত্বকে জীবাণুর আক্রমণ হয়, র‍্যাশ বা চুলকানি হতে পারে। তবে কিছু সাধারন টিপস ফলো করলে বর্ষাকালেও প্রকৃতির মত ফ্রেশ ও প্রানবন্ত থাকা যায়। আপনাদের জন্য এই বাদলদিনের অতি প্রয়োজনীয় এক

তৈলাক্ত ত্বকে মেকআপ দীর্ঘ সময় ধরে রাখতে যা করণীয়

তৈলাক্ত ত্বকে মেকআপ দীর্ঘ সময় ধরে রাখতে যা করণীয়

সব ধরণের ত্বকের থাকে নিজস্ব কিছু গুনাগুন। তেমনি তৈলাক্ত ত্বকে রয়েছে কিছু উপকারিতা। এ ধরণের ত্বকে সহজে বলিরেখা পড়ে না, সেই সাথে ত্বকে সব সময় প্রাকৃতিক আদ্রতা বজায় থাকে। তবে সবকিছুরই ভালো মন্দ দুটি দিক থাকে। তৈলাক্ত ত্বকের প্রধান কিছু সমস্যার মধ্যে একটি হচ্ছে এ ত্বকের জন্য সঠিক মেকআপ পণ্য নির্বাচন করা অনেকটা কঠিন হয়ে যায় এবং ত্বকে মেকআপ দীর্ঘ সময় স্থায়ীও হয় না। যারা এ ধরনের সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্যই আমাদের এ আয়োজন। এই

গাঢ় মেহেদির রঙ পেতে ৮ টিপস

গাঢ় মেহেদির রঙ পেতে ৮ টিপস

মেহেদি রাঙ্গা হাত ছাড়া আসলে কোন উৎসবের কথা ভাবাই যায় না।আর সেটা যদি হয় ঈদের মত পবিত্র এক উৎসব তাহলে তো কথাই নেই। মেহেদির রঙ গাঢ় না হলে কিন্তু মনটাই খারাপ হয়ে যাবে সেই সাথে উৎসবের রঙও খানিক ফিকে হয়ে তা নিয়ে কোন সন্দেহ নাই। আগেরদিনে গাছ থেকে মেহেদি পাতা তুলে পাটায় বেটে হাত রাঙ্গানো হত। এখন অবশ্য সে ঝামেলা নেই, একদম রেডি করা মেহেদি টিউব আকারে পাওয়া যায়।শুধু কিনুন আর লাগান। তারপরও কিন্তু একটা

আন্ডার আর্মস এর কালো দাগের ঘরোয়া সমাধান

আন্ডার আর্মস এর কালো দাগের ঘরোয়া সমাধান

রুপ সচেতন নারীদের জন্য এক ভীষণ বিব্রতকর সমস্যার নাম হচ্ছে আন্ডার আর্মস এর কালো দাগের সমস্যা।এই গরমে কম বেশি সবাই যখন স্লিভ লেস কিং ম্যাগি হাতার জামা পরতে অভ্যস্ত, সেখানে এই আন্ডার আর্মস এর কালো দাগ যে শুধু ঝামেলাই ডেকে আনে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে আমাদের জীবনে সমস্যা যেমন আছে, কোথাও না কোথাও সেই সমস্যার সমাধানও লুকিয়ে আছে। আর যেকোন রুপ সংক্রান্ত সমস্যার জন্য যুগে যুগে চলে আসা আমাদের দাদি নানি দের

ঘরোয়া টিপস

ঘরোয়া কিছু সাধারণ টিপস, যা অসাধারণ কাজের

প্রতিদিন রাধুনীর রান্নাঘরে থাকে ওটা সেটা কত ঝামেলা।আসুন জেনে নেই এমন কিছু ঘরোয়া সাধারণ টিপস যার মাধ্যমে রাধুনীরা এসব সমস্যা থেকে রেহাই পেতে পারেন অসাধারণ ভাবে। ঘরোয়া টিপস ১। তরকারিতে হলুদ বেশি হয়ে গেলে আটা মাখিয়ে দিয়ে দিন। ভয় নেই ওটা গলবে না,আস্তে আস্তে শক্ত হয়ে যাবে এবং বারতি হলুদ কমিয়ে ফেলবে। ২। শুকনো মরিচ, বিস্কুট, চানাচুর ফ্রিজে রেখে দিলে মচমচে থাকবে। ৩। পেঁয়াজ কাটতে গেলে চৌখ তো জ্বালাতন করবেই এ সমস্যার সমাধান হলো পেঁয়াজ খোসা

হাতের ফোসকা থেকে মুক্তিতে লবণ

হাতের ফোসকা থেকে মুক্তিতে লবণ

রান্না করার সময় হাতে গরম ছ্যাকা লেগে ফোসকা পড়া খুব সাধারণ একটা ব্যাপার। নিয়মিত রান্না করেন অথচ কখনো হাতে গরম তেল বা পানির ছ্যাকা খাননি এমন রাধুনী খুজে পাওয়া বেশ দুস্কর। আর গরম ছ্যাকা লাগার পর ফোসকা পড়া বা জ্বালা করা তো অবশ্যম্ভাবী ব্যাপার। এই ফোসকা আর জ্বালাপোড়া থেকে আমাদের রান্নাঘরে পড়ে থাকা খুব সাধারণ একটা জিনিস আপনাকে উদ্ধার করতে পারে। সেটি হচ্ছে লবণ। রান্না করার সময় শরীরের কোন অংশে গরম ছ্যাকা লাগার সাথে সাথে