পুরাতন টুথব্রাশের অন্যরকম চমৎকার ব্যবহার।

দাড়ান! দাঁতের ব্রাশ কি পুরাতন হয়ে গেছে? ফেলবেন না ভুলেও! ডাস্টবিনে ফেলে দেওয়ার আগে এই পোস্ট টি একবার অন্তত পড়ে দেখুন। দাঁতের ব্রাশটা আর ফেলনা মনে হবে না। বরং আপনার কাছে এটি খুবই লাভজনক জিনিস বলে মনে হবে। তবে চলুন, কথা না বাড়িয়ে সরাসরি আলোচনায় চলে আসি।

রান্নঘরের কাজে : মাইক্রোওয়েব ওভেন,টোস্টার,কফি মেশিন যেকোন কিছু পরিষ্কার করতে পারে আপনার পুরাতন ব্রাশটি। লেগে থাকা যেকোন শুকনো খাবার ব্রাশ দিয়ে পরিষ্কার করে নিন।

কাপড়ের দাগ উঠাতে: আচ্ছা কাপড়ে জেদি কোন দাগ পড়ে গেছে?চিন্তা করবেন না। টুথব্রাশ আছে না?সাথে একটু ডিটারজেন্ট নিন ব্যাস ব্রাশ আর ডিটারজেন্টে দাগ কেমন গায়েব করে দেখুন না!

চপিং বোর্ড পরিষ্কার করতে: চপিং বোর্ড গৃহিনীদের অতি প্রয়োজনীয় এক জিনিস তবে এটি পরিষ্কারের ঝামেলা কেমন তাও নিশ্চয় আপনার অজানা নয়! চপিং বোর্ড পরিষ্কার করতে পুরাতন টুথব্রাশ ব্যবহার করুন।দেখবেন দ্রুত ঝকঝকে হয়ে যাবে।

টাইলস পরিষ্কার করতে: বাথরুম অথবা কিচেন টাইলস কি ময়লা হয়ে গেছে? এক কাজ করুন পুরাতন টুথব্রাশ হাতে নিন।বেকিং সোডা আর পানির মিশ্রণ তৈরী করুন।এবার ব্রাশ এই মিশ্রণে ভিজিয়ে টাইলস হালকা করে ঘষে নিন?দেখুনতো টাইলস কেমন চমকাচ্ছে?

আইভ্রুর ব্রাশ হিসেবে ব্যবহার: আচ্ছা কেমন হয় যদি পুরাতন দাঁতের ব্রাশ আপনাকে মেকাপে সহায়তা করে?ঠিক তাই ,পুরাতন ব্রাশটাকে আইভ্রুর ব্রাশ হিসেবে ব্যবহার করুন।

নখ পরিষ্কার করতে: নখে হলুদের দাগ অথবা যেকোন জেদি দাগ দুর করবে পুরাতন টুথব্রাশ। খুবই সহজ কাজ, ব্রাশে সাবান লাগিয়ে নখ ঘষে নিন আর কিছু লাগবে না!

কল পরিষ্কার করতে: আপনার কল প্লাস্টিক বা স্টিলের হোক এতে খুব সহজেই পানির দাগ পড়ে যায়।এ দাগ দুর করতে পুরাতন টুথব্রাশ ব্যবহার করুন সহজেই পরিষ্কার হয়ে যাবে।

চুলের কাজে: জানেন পুরাতন টুথব্রাশ আপনার চুলের কাজেও আসতে পারে।চুলে মেহদী লাগাবেন?এক্ষেত্রে আপনার পুরাতন ব্রাশ দিয়ে চুলে মেহদী লাগিয়ে নিন হাত অযথা নষ্ট হবে না। চুল কালার করতেও সহায়তা করতে পারে পুরাতন টুথব্রাশ।

বাচ্চাদের রুমে টুথব্রাশের ব্যবহার: এতক্ষন তো আপনার কাজের কথা বললাম চলুন এবার অন্য আলোচনায় আসি।জানেন আপনার সোনামনির বিভিন্ন কাজেও আসতে পারে পুরাতন টুথব্রাশটি। দেয়ালকে ক্যানভাস ভেবে আপনার সন্তান তো দেয়ালের সব সৌন্দর্য্য নষ্ট করে দিয়েছে! সমস্যা নেই পুরাতন টুথব্রাশ দিয়ে হালকা করে দাগগুলো ঘষে দিন দেখবেন সহজেই উঠে যাচ্ছে। এছাড়াও আপনার সোনামনির পুতুল অথবা অন্য যেকোন খেলনা পরিষ্কার করতে সাবানের পানিতে পুরাতন টুথব্রাশ ভিজিয়ে খেলনা আর পুতুল ঘষে নিন দেখবেন ময়লা চমৎকারভাবে পরিষ্কার হয়ে গেছে আর খেলনাগুলো একদম নতুন মনে হচ্ছে! আরেকটা ব্যাপার তো বলতে ভুলেই গেছি ! আপনার সোনামনি পুরাতন টুথব্রাশটিকে তার আর্টের সঙ্গী করে নিতে পারে! একটু শিখিয়ে দিন কিভাবে সে চমৎকার করে পুরাতন টুথব্রাশ দিয়ে চিএ রঙ করতে পারবে।

ল্যাপটপ অথবা মোবাইল পরিষ্কার করতে: অবাক হবেন না ।দেখুন তো আপনার ল্যাপটনের কিবোর্ডে কি ময়লা জমে আছে? এ ময়লাগুলো খুব সহজে পরিষ্কার করতে পুরাতন টুথব্রাশটাই কিন্তু সেরা। একইভাবে মোবাইলের চারপাশে জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার করতে পুরাতন টুথব্রাশ ব্যবহার করুন।

হেয়ার ব্রাশ পরিষ্কার করতে: মজার ব্যাপার শুনুন, জানেন? ছোট্ট টুথব্রাশটি সুন্দরভাবে আপনার চুলের ব্রাশের চুল আর ময়লা পরিষ্কার করবে খুব সহজেই!

গহনা পরিষ্কার করতে: আপনার শখের গহনা ময়লা হয়ে আগের উজ্জলতা হারিয়েছে? নকশার মধ্যে লেগে থাকা জেদি ময়লা যেনো উঠতেই চাইছে না ! সমস্যা নেই টুথব্রাশ দিয়ে ঘষে দিন চটপট পরিষ্কার হয়ে যাবে!

হেয়ার ড্রায়ার পরিষ্কার করতে: হেয়ার ড্রায়ারের মুখ পরিষ্কার করতে ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে? ব্রাশ দিয়ে ঘষে নিন। ব্যাস সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে।

রেফ্রিজারেটর পরিষ্কার করতে: ফ্রিজ পরিষ্কার করতে পুরাতন টুথব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন। কাজ সহজ হবে।

জানালার কাঁচ: জানালার কাঁচ পরিষ্কার করতে পুরাতন টুথব্রাশ ব্যবহার করুন। যেকোন ধরনের দাগ উঠতে বাধ্য!

কার্পেটের দাগ তুলতে: খালি হাতে কার্পেটের যেকোন দাগ তুলা সম্ভব না। দাগের জায়গাটা টুথব্রাশ দিয়ে ঘষে দিন কাজ সহজ হবে।

স্যান্ডেল পরিষ্কার করতে: আপনার স্যান্ডেল,ট্রেইনার সবই পরিষ্কার করতে কাজে আসবে আপনার পুরাতন টুথব্রাশ।

মোটরবাইকের যত্নে : আপনার বাইকের চেইন অথবা সাইকেলের চেইন পরিষ্কার করতে পুরাতন টুথব্রাশ কাজে আসবে।

স্ট্যান্ড ফ্যান পরিষ্কার করতে: স্ট্যান্ড ফ্যান পরিষ্কার করা বেশ ঝামেলার কাজ তবে আপনার পুরাতন টুথব্রাশ আর সামান্য ডিটারজেন্ট এ কাজ সহজ করবে

গাড়ি ধুতে: গাড়ি ময়লা হয়ে গেলে তা ধুতে পুরাতন টুথব্রাশ ব্যবহার করুন।ভালো পরিষ্কার হবে।

বেসিন পরিষ্কার করতে: কিচেনের বেসিন অথবা বাথরুমের বেসিন খুব ভালো পরিষ্কার করবে পুরাতন টুথব্রাশ। সামান্য ব্লিচিং পাউডার ব্রাশে লাগিয়ে বেসিন ঘষে দিন।ঝকঝকে বেসিন পাবেন নিমিষেই!

দেখলেন তো সামান্য একটা পুরাতন টুথব্রাশ কেমন আপনার কাজে আসতে পারে! তাই টুথব্রাশ কখনো পুরাতন হলে ফেলে দিবেন না।বুদ্ধি দিয়ে কাজে লাগান।

মন্তব্যসমূহ

বর্তমানে শিক্ষার্থী এছাড়া আর কিছু করছি না। সিলেটে থাকি। লেখালেখি আমার পুরাতন শখ। আর কখনোই এই শখ বাদ দিতে চাই না। এছাড়া বলার মতো আর কিছু আপাতত খুঁজে পাচ্ছি না।

৩ টি মন্তব্য
  1. Reply এবার ফেলনা টুথব্রাশ দিয়েই হয়ে যাক দারুণ কিছু | চটপট - এসো নিজে করি জানুয়ারী ৭, ২০১৮ তারিখে ৮:০৬ পূর্বাহ্ন

    […] অনেক ঝক্কি পোহাতে হয়। কিন্তু একটি পুরোনো টুথব্রাশ খুব সহজেই এই ঝামেলা থেকে আমাদের […]

  2. Reply এমন কিছু জায়গা যা আমরা পরিস্কার করতে ভুলে যাই জানুয়ারী ৭, ২০১৮ তারিখে ৯:০১ পূর্বাহ্ন

    […] আপনার কি-বোর্ডের কি গুলো একটি পুরনো টুথব্রাশ দিয়ে ঝেড়ে পরিস্কার করে নিন। […]

  3. Reply চোখ বড় দেখাতে কি করবেন? | চটপট - এসো নিজে করি জুলাই ২৩, ২০১৮ তারিখে ২:৪৫ পূর্বাহ্ন

    […] ভ্রুর সঠিক আকার বলতে ন্যাচারেল শেইপ বুঝানো হয়েছে। ভ্রু আকারে একটু বড় ও পুরু হলে এক ধরণের বিভ্রম সৃষ্টি হয়, এতে ছোট চোখকে অনেকটা বড় মনে হয়। তাছাড়া ওভার টুইজড ভ্রু চেহারায় বয়স বাড়িয়ে তোলে। যখন মেকআপ করবেন তখনও ভ্রু বড় করে এঁকে নিতে পারেন। […]

মন্তব্য করুন