লেবু ও মধু পানীয়ের উপকারীতা।

লেবু ও মধু পানীয় স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী এক পানীয়। এ পানীয় খেলে শারীরিক নানান সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

এক চা চামচ মধু এক গ্লাস ঠান্ডা অথবা কুসুম গরম পানিতে মিশিয়ে নিন। এবার এতে এক টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে রোজ সকালে খালি পেটে। অথবা রাতে ঘুমানোর আগে পান করুন। অনেক বেশি উপকার পাবেন।

লেবু পানীয়ের উপকারীতা বা কার্যকরীতা:

👉 মেদ কমাতে লেবু পানীয়ের বিকল্প নেই। এক মাস টানা পান করুন। পেটে জমে থাকা মেদ কমবে। সুন্দর ফিগারের রহস্য হলো এই লেবু পানীয়।

👉 যারা ডি হাইড্রেটেশন বা পানি স্বল্পতায় ভোগছেন তারা অবশ্যই এই পানীয় দিনে দুবার পান করুন। সাথে একটু আদার রস মিশিয়ে নিলে আরো ভালো ফল পাবেন।

👉 হজম শক্তি বৃদ্ধি করবে এই পানীয়। ভারী খাবার বা ক্যালরিযুক্ত খাবার খাওয়া পর এই পানীয় পান করুন। সহজে হজম হবে।

 

👉 এই পানীয় ত্বকের উজ্জলতা বাড়াবে। প্রতিদিন পান করলে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। এছাড়া এই পানীয় ভেতর থেকে আপনার ত্বকের উজ্জলতা বাড়াবে এবং বলিরেখা দুর করবে।

👉 যারা রক্ত স্বল্পতায় ভোগছেন তারা প্রতিদিন সকালে এই পানীয় পান করুন। মধুতে অনেক বেশি আয়রন আছে যা রক্ত শূন্যতা দুর করবে।

👉 যাদের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা আছে তারা এই পানীয় সকালে খালি পেটে পান করুন। গ্যাস্ট্রিকের সমস্যাও কমবে।

 

👉 গবেষনায় দেখা গেছে মধু ও লেবু পানীয় মনকে প্রফুল্ল রাখে। অবসাদ ,বিষন্নতা বা ক্লানি্ত দুর করবে এই পানীয়।

👉 সকালে ঘুম থেকে উঠা পর লেবু পানীয় পান করলে আপনি সতেজ নিঃশ্বাস পাবেন। মুখের দূর্গন্ধও দুর হবে।

👉 এনার্জি লেবেল বাড়াতে বা শরীরে লবনের অভাব পূরণ করতেও লেবু পানীয়ের জুরি নেই ! এই পানীয় আপনার শরীরে শক্তি বৃদ্ধি করবে।

 

👉 ব্রণের সমস্যা কমাতে লেবু পানীয় সেরা। প্রতিদিন পান করে দেখুন। ভালো ফল পাবেন।

👉 শরীরের যেকোন ক্ষত সারাতে এই পানীয় ভেলকির মতো কাজ করবে। কারণ লেবুতে উপস্থিত ভিটামিন সি যেকোন ক্ষত সারাতে পটু!

👉 ঠান্ডা লাগা রোগ বা গলা ব্যাথা কমাতে উপকারী হলো এই পানীয়। কুসুম গরম পানিতে লেবু ও মধু মিশিয়ে পান করুন। দু তিনবার পান করা পরই আরাম পাবেন।

লেবু পানীয় , সহজ এই পানীয় পান করলে বিভিন্ন ধরনের উপকার পাবেন যা আপনাকে আসক্ত করে তুলতে পারে চমৎকার এই পানীয়ের প্রতি।

মন্তব্যসমূহ

বর্তমানে শিক্ষার্থী এছাড়া আর কিছু করছি না। সিলেটে থাকি। লেখালেখি আমার পুরাতন শখ। আর কখনোই এই শখ বাদ দিতে চাই না। এছাড়া বলার মতো আর কিছু আপাতত খুঁজে পাচ্ছি না।

মন্তব্য করুন