ফ্রাইড আইসক্রিম!!

ফ্রাইড আইসক্রিম, কি নাম শুনেই ভাবছেন এইটা আবার কি?? আইসক্রিম তো খাওয়া হয়েই থাকে। এবার না হয় এই শীতে একটু ভিন্ন কিন্তু দারুন মজাদার ও লোভনীয় এই রেসিপিটি খেয়ে দেখুন। আশা করছি খুব ভালো লাগবে।

 ফ্রাইড আইসক্রিম বানানোর উপকরণঃ

১. আইসক্রিম ( যেকোন ফ্লেভার)  – ৮ স্কুপ

২. চিনি – ২ টেবিল চামচ

৩.কর্ণফ্লেক্স (ক্রাসড) – ২ কাপ

৪. বিস্কুট ক্রাসড (ভ্যানিলা ফ্লেভার) – ১ কাপ

৫. কাঠবাদাম ( ক্রাসড) – ২ টেবিল চামচ ( ঐচ্ছিক)

৬. ডিম – ২ টি

৭. তেল – ভাজার জন্য

 

প্রণালীঃ

এই রেসিপিটি নিখুঁতভাবে করার জন্য কিছু কৌশল অবলম্বন  করতে হবে।

** আইসক্রিম অবশ্যই একদম শক্ত হতে হবে, না হলে ভাজার সময় গলে যাবে।

** আইসক্রিম তোলার আগে স্কুপার ও ফ্রিজে রেখে দিন।

কোটিং তৈরি ঃ

কর্ণফ্লেক্স , বিস্কুট ও কাঠবাদাম ভেঙ্গে নিন ( একদম গুঁড়া হবে না, ব্রেডক্রামের মত দানা দানা হবে)। এবার একটা বাটিতে কর্ণফ্লেক্স, বিস্কুট ও কাঠবাদামের গুঁড়া ও চিনি একসাথে মিশিয়ে নিন। অন্য এক পাত্রে ডিম ফেটিয়ে নিন।

এবার এক স্কুপ আইসক্রিম তুলে ডিমের গোলাতে ডুবিয়ে কর্ণফ্লেক্সের গুঁড়ায় গড়িয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন যেন খুব ভালভাবে আইসক্রিমে কর্ণফ্লেক্সের গুঁড়াে কোট হয়। তা নাহলে ভাজার সময় আইসক্রিম বের হয়ে যাবে। চাইলে একই পদ্ধতি আর ১ বার করুন।

এক স্কুপ তৈরি করেই ফ্রিজে রাখুন। সবগুলো হয়ে গেলে এবার সেট হওয়ার জন্য ফ্রিজে রেখে দিন ২ ঘণ্টা।

২ ঘণ্টা পরে একটা গভীর প্যানে তেল গরম করে নিন। তেলটা খুব গরম হবে। এখন একটা করে আইসক্রিমের বল বের করে খুব সাবধানে তেলে ছাড়ুন। ৩০ সেকেন্ডের মত ভেজে নিন বা উপরের কোটিং বাদামী না হওয়া পর্যন্ত।

ব্যাস, একদম তৈরি আপনার ফ্রাইড আইসক্রিম। উপরে কুড়মুড়ে কোটিং ভিতরে আইসক্রিম!!

♥ চকলেট সিরাপ / চিপস ও হুইপড ক্রিম দিয়ে পরিবেশন করুন।

 

 

 

 

মন্তব্যসমূহ

নিজের পরিচয় দিতে গেলে সবার আগে বলব, আমি একজন মা। তার সাথে একজন হোমমেকার, শিক্ষক ও ব্লগার। লিখতে ভালবাসি। তার চাইতে ভালবাসি পড়তে, জানতে। এইতো! ছোট এক জীবনে অনেক কিছু, আলহামদুলিল্লাহ!!

মন্তব্য করুন