সৌন্দর্য্যে গুড়া দুধের ব্যবহার

তরল দুধ সৌন্দর্য্য রক্ষায় কাজে আসছে যুগ যুগ ধরে। তবে জানেন কি যে, গুড়া দুধ ও সৌন্দর্য্য রক্ষায় সমানভাবে কাজে আসতে পারে !

চলুন দেখে নেই গুড়া দুধের কিছু কার্যকরীতা….

👆 এক চামচ গুড়া দুধের সাথে আধা চা চামচ অর্গানিক মধু মিশিয়ে নিন। এরপর তা ফেস মাস্ক হিসেবে মুখে ব্যবহার করুন। এই প্যাক আপনার ত্বককে হাইড্রেটেড করবে।

👆 মুলতানি মাটির সাথে গোলাপজল ও গুড়া দুধ মিশিয়ে প্যাক তৈরী করুন এরপর তা মুখে লাগিয়ে রাখুন দশ মিনিট এরপর হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। মুলতানি মাটি ত্বকের বাড়তি তেল শুষে নেবে। এই প্যাক তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারীদের জন্য খুব ভালো।

👆 গুড়া দুধের সাথে সামান্য পানি ও চিনি মিশিয়ে ন্যাচারাল ফেস স্ক্রাবার হিসেবে ব্যবহার করুন। মুখের মড়া চামড়াগুলো সহজে উঠে যাবে।

👆 ব্লিচিং মাস্ক তৈরী করতে ব্যবহার করুন গুড়া দুধ। লেবুর খোসা রোদে শুকিয়ে মিহি গুড়া করে নিন। এর সাথে গুড়া দুধ ও টমেটোর রস বমিশিয়ে মাস্ক তৈরী করুন। এই মাস্ক সপ্তাহে তিন -চারদিন ব্যবহার করুন আপনার ত্বক একদম পলিশ থাকবে।

এছাড়াও চালের গুড়ার সাথে, শশার রসের সাথে বা যেকোন ধরনের দইর সাথে সামান্য গুড়া দুধ মিশিয়ে মুখে ব্যবহার করলে খুব ভালো ফল পাবেন। গুড়া দুধ ত্বকের দাগ কমাতে, ত্বক পলিশ করতে এবং ত্বক উজ্জল করতে পারদর্শী। এখন থেকে শুধু তরল দুধ নয় গুড়ো দুধ ও ব্যবহার করতে পারেন রূপের যত্নে।

মন্তব্যসমূহ

বর্তমানে শিক্ষার্থী এছাড়া আর কিছু করছি না। সিলেটে থাকি। লেখালেখি আমার পুরাতন শখ। আর কখনোই এই শখ বাদ দিতে চাই না। এছাড়া বলার মতো আর কিছু আপাতত খুঁজে পাচ্ছি না।

মন্তব্য করুন