মুচমুচে পালং পাতা !

পালং শাক সব বাঙ্গালীদের কাছেই খুব পরিচিত। এই পাতা দিয়েই তৈরী করে নিতে পারেন দারুণ এক খাবার। জি , বলছিলাম পালং পাতার কথা।ভূনা খিচুরী, পোলাও বা বিরিয়ানীর সাথে খেতে পারবেন মুচমুচে পালং পাতা। তাছাড়া বিকেলের চায়ের সাথেও খেতে পারবেন এই খাবার। তবে আর কথা না বাড়াই।

এক নজরে দেখে নিন রেসিপি….

তৈরী করতে যা যা লাগবে :

পালং পাতা দশ বারোটার মতো।

বেসন আধা কাপ।

লাল মরিচ গুড়া আধা চা চামচ

হলুদ গুড়া এক চিমটি

টমেটো সস দেড় টেবিল চামচ

কর্ণফ্লাওয়ার এক টেবিল চামচ।

আদা বাটা আধা চা চামচ

রসুন বাটা আধা চা চামচ

গোলমরিচ গুড়া সামান্য

লবন পরিমাণমতো

ধনে পাতা কুচি সামান্য।

তেল ভাজার জন্য।

 

তৈরী পদ্ধতি :

প্রথমে পালং শাক খুব ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে নিন। একটি পাত্রে বেসন, কর্ণফ্লাওয়ারে সাথে একে একে আদা, রসুন, মরিচ হলুদ, ধনে কুচি, গোলমরিচ গুড়া, সব কিছু এক সাথে মিশিয়ে নিন। পানি দিয়ে ঘন গোলা তৈরী করুন। একটি পাত্রে তেল গরম হতে দিন। পাতা গুলো গোলায় চুবিয়ে কম আঁচে ভেজে নিন।

ব্যাস নামিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার পালং পাতা। বেশি ঝামেলায় যেতে না চাইলে পালং পাতা ডিমে চুবিয়ে ব্রেডক্রাম্বে গড়িয়ে ভেজে নিলেও খেতে ভালো লাগবে।

এই পাতা শরীরের জন্য দারুণ উপকারী তাই সুস্বাদু এই রেসিপিটি পুষ্টি গুণেও কম যায় না। তবে অবশ্যই রেসিপিটি বাসায় একবার তৈরী করে দেখবেন।

মন্তব্যসমূহ

বর্তমানে শিক্ষার্থী এছাড়া আর কিছু করছি না। সিলেটে থাকি। লেখালেখি আমার পুরাতন শখ। আর কখনোই এই শখ বাদ দিতে চাই না। এছাড়া বলার মতো আর কিছু আপাতত খুঁজে পাচ্ছি না।

মন্তব্য করুন