কর্ণফ্লাওয়ারের অন্যরকম ব্যবহার।

  • স্যূপ বলুন বা যেকোন থাই খাবার, এক বোতল কর্ণফ্লাওয়ার কিন্তু দরকার পড়ে,  সবসময়। আপনার ফ্রিজ খুললেই চোখে পড়বে কর্ণফ্লাওয়ার, তাই না?

কর্ণফ্লাওয়ার শুধু যে রান্নার কাজেই লাগে তা কিন্তু না, এছাড়াও কিছু দরকারি  কাজে আসতে পারে কর্ণফ্লাওয়ার। এক ঝলকে দেখে নিন, কি সেই কাজগুলো।

👉 ফেসপ্যাক হিসেবে কাজে আসতে পারে কর্ণফ্লাওয়ার। কর্ণফ্লাওয়ার আপনার মুখের ময়লা পরিষ্কার করতে পারদর্শী। পছন্দসই ফেসপ্যাকের সাথে মিশিয়ে নিতে পারেন কর্ণফ্লাওয়ার।

👉 ফ্লোর বা কাপড়ে অনেক সময় রক্তের দাগ লেগে যেতে পারে। এই দাগগুলো তুলতে অনেক কষ্ট পোহাতে হয়। কিন্তু ঘরে কর্ণফ্লাওয়ার থাকলে এই কাজটিও হয়ে উঠবে সহজ। ঠান্ডা পানির সাথে কর্ণফ্লাওয়ার মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরী করুন। এইবার একটি ব্রাশের সাহায্যে দাগের উপর এই পেস্ট লাগিয়ে রেখে দিন। রোদে দিয়ে শুকিয়ে নিন। খেয়াল করে দেখুন, দাগ নেই আর!

👉 জানালার কাঁচগুলোকে হীরের মতো চমক দিতে চাইলে, কর্ণফ্লাওয়ার ও হোয়াইট ভিনেগার একসাথে মিশিয়ে গ্লাস ভিজিয়ে নিন। এবার খবরের কাগজ দিয়ে গ্লাসগুলো মুছে দিন। ব্যাস দেখুন কেমন চমকাচ্ছে গ্লাসগুলো !

👉 শীতের দিনে ত্বকের রুক্ষতা থেকে বাঁচতে গরম পানিতে সামান্য কর্ণফ্লাওয়ার মিশিয়ে শাওয়ার করতে পারেন।

👉 কর্ণফ্লাওয়ারের সাথে দারুচিনি পাউডার মিশিয়ে অথবা বেবি পাউডার মিশিয়ে তা আপনি আপনার বেড কভার বা সোফায় ছিটিয়ে দিলে দারুণ সুগন্ধ পাবেন।

👉 মুখের বাড়তি তেল শোষনের জন্য সামান্য লেবুর রস ও কর্ণফ্লাওয়ার এক সাথে মিশিয়ে মুখ ধুয়ে নিতে পারেন।

তবে এখন থেকে কর্ণফ্লাওয়ারকে শুধই খাদ্যদ্রব্য হিসেবে দেখা ভুলে যান !

 

মন্তব্যসমূহ

বর্তমানে শিক্ষার্থী এছাড়া আর কিছু করছি না। সিলেটে থাকি। লেখালেখি আমার পুরাতন শখ। আর কখনোই এই শখ বাদ দিতে চাই না। এছাড়া বলার মতো আর কিছু আপাতত খুঁজে পাচ্ছি না।

মন্তব্য করুন