ফ্রিজের দুর্গন্ধ দূর করুন সহজতম উপায়ে।

দৈনন্দিন বিভিন্ন কাজে হাজার বার আপনি আপনার প্রিয় ফ্রিজটি খুলে থাকেন। ভাবুন তো, ফ্রিজ খুলার সাথে সাথে বাজে গন্ধ নাকে এসে লাগলে কেমন লাগবে ? নিশ্চয় ভালো লাগবে না। তাই জেনে নিন কিভাবে আপনার ফ্রিজটিকে দুর্গন্ধ মুক্ত রাখবেন।

ফ্রিজে মাছ-মাংস সহ বিভিন্ন খাবার রাখা হয়ে থাকে। খাবারের সাথে সাথে ফ্রিজে ছড়াতে পারে দুর্গন্ধ। তবে কিছু উপাদান ফ্রিজের দুর্গন্ধ দুর করতে পারে সহজেই। দেখে নিন কি সে উপাদানগুলো।

১: বেকিং সোডা :

ফ্রিজের দুর্গন্ধ দুর করতে সর্বশ্রেষ্ট উপাদা হচ্ছে বেকিং সোডা। তাছাড়া আপনি ফ্রিজের বিভিন্ন দাগ দুর করতেও ব্যবহার করতে পারেন বেকিং সোডা। এক কাপ পানিতে চার টেবিল চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন। এরপর এই পানি দিয়ে পুরো ফ্রিজ মুছে নিন। দাগ ও যাবে ! সাথে দুর্গন্ধ !

২: ভ্যানিলা এসেন্স:

হ্যা , একটু অবাক হতেই পারেন। নিশ্চয় ভাবছেন কেক তৈরীর এই উপকরণ কিভাবে আপনার ফ্রিজের দুর্গন্ধ দুর করবে তাই না ! কিন্তু অবাক হলেও সত্যি যে ভ্যানিলা এসেন্স আপনার ফ্রিজে নিয়ে আপতে পারে বেকারীর মতো দারুণ সুঘ্রাণ। একটি বাটিতে দু টেবিল চামচ পানি নিন। এতে দু-চার ফোঁটা ভ্যানিলা এসেন্স ঢেলে দিন। এবার বাটি টি ফ্রিজের এক কোণায় রেখে দিন। প্রতিবার ফ্রিজ খোলার সাথেই একটা মিষ্টি ঘ্রাণ পাবেন।

৩: লেবু:

বলছি লেবুর কথা , একদম পরিচিত একটি উপাদান। কিন্তু এবার এটি নতুনভাবে ব্যবহারের সময়। ফ্রিজের ভ্যাপসা গন্ধ দুর করতে আর কোন ঝামেলাই করতে হবে না। ব্যাস ছোট এক টুকরো লেবু কেটে ফ্রিজে রেখে দিন। ফ্রিজে কোন বাজে গন্ধ থাকবে না আর।

৪: গোলাপ জল :

ত্বকের যত্নে বা খাবারে অনেক সময় গোলাপ জল ব্যবহার করে থাকি আমরা। কিন্তু ফ্রিজের দুর্গন্ধ দুর করতেও আজ থেকে ব্যবহার করতে পারেন গোলাপজল। সব থেকে সহজ উপায় হচ্ছে একটি ফোমে গোলাপ জল নিয়ে ফ্রিজের ভেতর মুছে নেওয়া। অথবা একটি মুখ খোলা জারে সামান্য গোলাপ জল নিয়ে ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন। গোলাপ জলের পরিবর্তে আপনি এ্যাপেল সিডার ভিনেগারও ব্যবহার করতে পারেন।

আশা করি পোস্ট টা কিছুটা হলেও আপনাদের কাজে আসব এবং আর কখনোই আপনাকে ফ্রিজের দুর্গন্ধ নিয়ে মাথা ঘামাতে হবে না।

মন্তব্যসমূহ

বর্তমানে শিক্ষার্থী এছাড়া আর কিছু করছি না। সিলেটে থাকি। লেখালেখি আমার পুরাতন শখ। আর কখনোই এই শখ বাদ দিতে চাই না। এছাড়া বলার মতো আর কিছু আপাতত খুঁজে পাচ্ছি না।

মন্তব্য করুন