এই শীতে ত্বকের যত্ন।

ঠান্ডা,ঠান্ডা বাতাসই জানান দিচ্ছে , আস্তে আস্তে বেড়ে চলেছে শীতের তীব্রতা, ডিসেম্বর নাগাদ শীতের এই তীব্রতা বেড়ে দিগুণ হওয়ার সম্ভাবনা আছে। শীতের সময় ত্বক হয়ে উঠে রুক্ষ ও শুষ্ক। এই সময় ত্বকের নিতে হবে বাড়তি যত্ন এই নিয়েই আমাদের আজকের আলোচনা।

মুখের ত্বক সবচেয়ে বেশি সংবেদনশীল। শীতের সময় ত্বককে মোটেও অবহেলা করতে পারবেন না। এই সময়েও ত্বককে কিভাবে সতেজ রাখা যায় তা দেখে নিন।

  • শীতকালে ত্বকে ময়েশ্চার ধরে রাখা সবচেয়ে বেশি গুরত্বপূর্ণ। প্রতিদিন রাতে ভারী ময়েশ্চারাইজার যুক্ত ক্রিম ব্যবহার করুন। অথবা অলিভ অয়েল এবং ভেসলিন ও হতে পারে সেরা সিদ্বান্ত।
  • শীতকালে অনেকই পানি খেতে অনেক বেশি অনীহা করেন। কিন্তু এ সময় অবশ্যই বেশি করে পানি খেতে হবে। কারণ পানির অভাবে ত্বক আরো বেশি মলিন ও শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।
  • প্রতিবার , মুখ ধোঁয়া পর যেকোন ধরনের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক করে দেয়, এমন ফেসওয়াশ ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।
  • শাওয়ার করার সময়, অতিরিক্ত গরম পানি ব্যবহার করবেন না। অতিরিক্ত গরম পানি মুখের ত্বককে রুক্ষ ও বিবর্ণ করে তুলতে পারে।
  • শীতকালে ফেসিয়াল স্ক্রাব যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন। কেননা , স্ক্রাব ত্বককে আরো বেশি শুষ্ক করে তুলতে পারে। এছাড়া মুখের মড়া চামড়া বা ডেড সেল এ সময় আপনা আপনি ঝরে পড়ে, আলাদা করে স্ক্রাবিং করার প্রয়োজনীয়তা নেই।

 

এ সময়ের কার্যকরী ফেস প্যাক:

শীতের সময়ও ফেস প্যাকের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। বিশেষ করে এ সময় ময়েশ্চারাইজিং ফেস প্যাক বেশ কাজে আসতে পারে।

যা যা লাগবে :

মধু আধা চা চামচ

গুড়ো দুধ এক চা চামচ

দই সামান্য।

ব্যাবহারবিধি :

মধু, দই ও দুধ একসাথে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে রাখুন বিশ মিনিটের মতো। এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে পছন্দসই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

মধু আপনার ত্বকের মসৃনতা ধরে রাখবে, এবং দই ও দুধ ত্বককে টানটান ও উজ্জল করবে।

ত্বক ভালো রাখতে বেশি কিছুর প্রয়োজনীয়তা নেই শুধু দরকার একটু যত্নের, এতে অনীহা মোটেও চলবে না। আর হ্যা, এই সময়টাতে বাজারে প্রচুর শাক-সবজী পাওয়া যায় যা অন্য সময় মেলানো খুব মুশকিল। তাই বেশি করে শাকসবজী খান, এতে আপনার ত্বক ও স্বাস্থ্য দুটোই ভালো থাকবে।

মন্তব্যসমূহ

বর্তমানে শিক্ষার্থী এছাড়া আর কিছু করছি না। সিলেটে থাকি। লেখালেখি আমার পুরাতন শখ। আর কখনোই এই শখ বাদ দিতে চাই না। এছাড়া বলার মতো আর কিছু আপাতত খুঁজে পাচ্ছি না।

মন্তব্য করুন