প্রণ চিলি রেসিপি

প্রণ চিলি রেসিপি

বাঙালি মাত্রই চিংড়ি মাছভালবাসে। তাই তো নিত্য নতুন চিংড়ির রেসিপি খুজে বেড়ায়। আমিও ব্যাতিক্রম নই। চিংড়ি নিয়ে নানারকম এক্সপেরিমেন্ট করতে আমার খুবি ভাল লাগে। এরকমই একটা এক্সপেরিমেন্টের ফল হচ্ছে প্রণ চিলি। এটি বানানো খুব কঠিন কিছু না। আর যেই উপকরণগুলো লাগবে তার প্রায় সবগুলোই আমাদের হাতের কাছে দোকানে পাওয়া যায়। যদিও রান্নাটি দুই ধাপে করতে হয় তবুও এই রান্নার ঝামেলা কম। বরং বাসায় অতিথি আসার কথা থাকলে আগের রাতে মাছগুলো ভেজে রেডি করে ফ্রিজে রেখে দিন। আর পরদিন খাওয়ার আগে চট করে প্রণ চিলি বানিয়ে নিন। মাছ আগে থেকে ভাজা থাকলে রান্নাটি করতে সর্বোচ্চ ১০ মিনিট লাগবে। তো চলুন চট করে প্রণ চিলির রেসিপি দেখে নেই। আর চটপট বানিয়ে ফেলি মজাদার প্রণ চিলি।

প্রণ চিলি বানাবার উপকরণ

প্রণ মেরিনেটের উপকরণ

  • মাঝারি সাইজের চিংড়ি ১০ থেকে ১৫টি
  • টকদই ২ টেবিল চামচ
  • টমেটো সস ১ টেবিল চামচ
  • চিলি সস ১ টেবিল চামচ
  • সয়াসস ১ চা চামচ
  • টেস্টিং সল্ট ১/৪ চা চামচ
  • লবণ স্বাদমত
  • চিনি ১ চা চামচ
  • কালো গোলমরিচ গুড়া ১/২ চা চামচ
  • ভাজা জিরা গুড়া ১/২ চা চামচ
  • পেঁয়াজ বাটা ১ চা চামচ
  • রসুন বাটা ১/২ চা চামচ
  • আদা বাটা ১/২ চা চামচ
  • ডিম একটা
  • কর্ণফ্লাওয়ার পরিমাণমত
  • বেকিং পাউডার সামান্য
  • ব্রেড ক্রাম্ব অল্প
  • সয়াবিন তেল ভাজার জন্য

প্রণ চিলি বানাবার উপকরণ

  • সয়াবিন তেল ২ টেবিল চামচ
  • পেঁয়াজ ২টি
  • ক্যাপসিকাম কিউব ১/২ কাপ
  • রসুন কুচি ১ তেবিল চামচ
  • আদাকুচি ১/২ চা চামচ
  • সয়াসস ১ টেবিল চামচ
  • ভিনেগার ১ চা চামচ
  • মরিচ গুড়া ১/২ চা চামচ
  • টেস্টিং সল্ট ১/২ চা চামচ
  • লবণ স্বাদমত
  • চিনি ১ চা চামচ
  • কালো গোলমরিচ গুরা ১ চা চামচ
  • পানি অল্প

প্রণ চিলি বানাবার প্রণালী

প্রথমে প্রণ ফ্রাই করে নিতে হবে। এর জন্য প্রণের সাথে পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, আদা বাটা, টকদই, টমেটো সস, চিলি সস, সয়াসস, টেস্টিং সল্ট, লবণ, চিনি, ভাজা জিরা গুড়া আর গোলমরিচ গুড়া মেখে নিতে হবে। এভাবে আধা ঘন্টা মেরিনেট করে রেখে দিতে হবে। এরপর এর সাথে ডিম, কর্ণফ্লাওয়ার আর বেকিং পাউডার মাখাতে হবে। ইচ্ছা হলে এই সময় অল্প ব্রেড ক্রাম্বও দেয়া যেতে পারে। এরপর গরম ডুবো তেলে প্রণগুলো ভেজে নিতে হবে।

এবার আসল কাজ। কড়াতে দুই টেবিল চামচ তেল গরম করতে হবে। এতে প্রথমে রসুন কুচি ও আদা কুচি দিতে হবে। যদি আদা কুচি মুখে পড়লে ভাল না লাগে তাহলে আদা বাটাও দিতে পারেন। তবে সেক্ষত্রে রসুন আর পেঁয়াজ ভাজা হয়ে যাবার পর আদা বাটা দিতে হবে। পেঁয়াজ বড় বড় টুকরো করে কেটে নিন। রসুন হালকা ভাজা হয়ে গেলে পেঁয়াজ টুকরা আর ক্যাপসিকাম কিউব দিতে হবে। কিছুক্ষণ নেড়েচেড়ে রান্না করতে হবে। সয়াসস, টেস্টিং সল্ট, লবণ, চিনি আর কালো গোলমরিচ গুড়া দিতে হবে। ক্যাপসিকাম কিছুটা নরম হয়ে গেলে সামান্য পানি দিতে হবে। পানি ফুটে সস ঘন হয়ে আসলে ফ্রাই করা চিংড়িগুলো দিয়ে দিতে হবে। ভিনেগার দিতে হবে। একটু টস করে চুলা নিভিয়ে দিতে হবে। রেডি গরম গরম প্রণ চিলি।

 

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

মন্তব্য করুন