ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস এর জন্য কিছু কার্যকারী মাস্ক

ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস এর জন্য কিছু কার্যকারী মাস্ক

ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস একটি নিত্যনতুন সমস্যার নাম। ফেসিয়াল করার পরও কয়েকদিনের মধ্যে ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দেখা যায়। কারন একমাত্র অতিরিক্ত পলুশন, ধুলাবালি ইত্যাদি। এখন এর ভয়ে তো আর বাইরে যাওয়া বন্ধ করা যায়না। ঘরে বসে একটু সময় দিলে কিন্তু খুব সহজে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। স্কিনের যেকোনো সমস্যার মূল কারন স্কিন পরিষ্কার না থাকা। যেকোনো ফেসপ্যাক কাজে তখনই দিবে যখন স্কিন ক্লিন থাকবে। একটি সুস্থ, প্রানবন্ত ত্বকের জন্য ক্লিনিং খুব এ জরুরি। ত্বকের যেকোনো সমস্যা ত্বক পরিষ্কার থাকলে খুব সহজেই দূর হয়ে যায়। কেননা পরিষ্কার ত্বকে ফেসপ্যাক এর কার্যকারিতা বেশি। আসুন জেনে নেই খুব সহজ কিছু উপায় ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূরীকরণের।

ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করার ১ম পদ্ধতি

 ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করার জন্য প্রথমে একটি বাটিতে হাফ চামুচ হলুদ গুরা নিতে হবে। হলুদে আছে প্রচুর পরিমানে অ্যানটিঅক্সিডেন্ট যা ত্বককে গভির ভাবে পরিষ্কার করে এবং উজ্জ্বল করে। বাজার এ যেই হলুদ গুলা পাওয়া যায় সেইগুলা ব্যাবহার করা যাবে না। কেননা তাতে আছে প্রচুর পরিমানে কেমিক্যাল এবং প্রিজারভেটিভ।  একদম পিওর হলুদ ব্যাবহার করতে হবে। তারপর নিতে হবে ১ চামুচ মধু এরপর সব শেষে যেকোনো ব্র্যান্ড এর পিলঅফ মাস্ক ২ চামুদ নিতে হবে। সব উপাদান গুলা ভাল করে মিক্স করে স্কিন পরিষ্কার করে তারপর লাগাতে হবে। তারপর শুখিয়ে গেলে টেনে তুলতে হবে। ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস খুব সহজেই দূর হবে এই প্যাকটায়।

ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করার ২য় পদ্ধতি

টুথপেস্ট ব্যাবহার করে খুব সহজেই ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। প্রতি রাতে একটা ব্রাশে হাল্কা টুথপেস্ট লাগিয়ে দুই মিনিট ঘষে তারপর উষ্ণ গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করার ৩য় পদ্ধতি

দারচিনি এবং ডিমের মিশ্রণ ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করতে সাহায্য করে। সমপরিমাণে দারচিনি ও ডিমের সাদা অংশ মিশিয়ে নাকের উপর লাগিয়ে রাখতে হবে। শুখিয়ে গেলে টেনে তুলতে হবে। খুব সহজেই ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস উঠে যাবে।

ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করার ৪র্থ পদ্ধতি

ডিমের সাদা অংশ ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করে। প্রথমে নাকে স্টিম দিতে হবে। এরপর একটি টিস্যু চেপে দিয়ে রাখতে হবে। ২০ মিনিট পর সেইটা টেনে তুলে ফেলতে হবে।

ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করার ৫ম পদ্ধতি

ওটস খুব ভাল এক্সফলিয়েটর হিসেবে কাজ করে। সমপরিমানে ওটস এবং টকদই মিশিয়ে মুখে ভাল করে এক্সফলিয়েট করতে হবে। এতে করে খুব সহজেই ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর হয়।

ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করার ৬ষ্ঠ পদ্ধতি

 বেকিং সোডা এর মধ্যে আছে অ্যানটিব্যাকটেরিয়াল উপাদান যা ত্বককে গভীর ভাবে পরিষ্কার করে এবং ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস এর সমস্যা দূর করে। সপ্তাহে ২ বার টুথপেস্ট এর সাথে ১ চিমটি বেকিং সোডা মিশিয়ে নাকে ৫ মিনিট লাগিয়ে ধুয়ে ফেললে খুব সহজেই স্কিন ক্লিন হয়ে যায়।

মন্তব্যসমূহ

আমি স্টুডেন্ট। পড়াশুনার পাশাপাশি টুকটাক লিখতে ভালবাসি।

১ টি মন্তব্য
  1. Reply ফর্সা হন দশ মিনিটে | চটপট - এসো নিজে করি মার্চ ১৩, ২০১৮ তারিখে ৯:৪১ পূর্বাহ্ন

    […] জন্য অনেক উপকারি কেননা পিল অফ মাস্ক স্কিন এর ব্লাকহেডস, হোয়াইট হেডস দূর কর…, স্কিন কে গভির থেকে ক্লিন করে। এরপর […]

মন্তব্য করুন