ঘর সাজাতে দেশীয় পণ্য

ঘর সাজাতে দেশীয় পণ্য

ঘর মানেই শান্তির আবাস। সারাদিনের ক্লান্তিকর কাজের শেষে মানুষ ঘরে ফেরে এক টুকরো শান্তির আশায়। এজন্য আমাদের ঘরটাকে আমরা সবাই মনের মত করে সাজাতে চাই। যে যাই বলুক না কেন দিনের শেষে একটা সুন্দর, ছিমছাম আর পরিপাটি ঘর সবার কাম্য। ঘর সুন্দর করে সাজাতে বা ঘরের সাজে একটু নান্দনিকতার ছোয়া আনতে দেশীয় পণ্যের কোন জুড়ি নেই। আপনি নানাভাবে ঘরের সাজে দেশীয় পণ্যের ছোয়া আনতে পারেন। আসুন আজ ঘর সাজাতে কিভাবে দেশীয় পণ্য ব্যবহার করা যায় এমন কিছু টিপস জেনে নিই।

আসবাবপত্রে দেশীয় পণ্য

আসবাবপত্রে দেশীয় ভাব আনার সবচেয়ে ভাল মাধ্যম হচ্ছে বেতের আসবাবপত্র। আপনার লিভিং রুমে দামী আর ভারী কাঠের সোফা ব্যবহার না করে এক সেট বেতের সোফা কিনে ফেলুন। সাথে একটি সুন্দর কাঁচের গ্লাসওয়ালা বেতের টি টেবিল বসিয়ে দিন। আশে পাশে কয়েকটি সুন্দর বেতের টুলও বসিয়ে দিন। অথবা বারান্দার এক কোণে একটি বেতের দোলনা ঝুলিয়ে দিন। দেখুন এক নিমিষেই ঘরের চেহারা পালটে গেছে। সোফা সেট ছাড়াও আজকাল বেতের আরো নানারকম ফার্নিচার পাওয়া যায়। যেমন আজকাল বাজার ঘুরলে আপনি নানারকম বেতের খাট, ওয়ার্ডড্রোব, ড্রেসিং টেবিল, আলমিরা থেকে শুরু করে খাবার টেবিল চেয়ারও কিনতে পারবেন। এছাড়া এসব আসবাবপত্র আজকাল বাঁশ দিয়েও বানানো হচ্ছে। আপনি ঘরে দেশীয় আবহ আনতে এসব ফার্নিচারও কিনতে পারেন।

শো পিস হিসেবে দেশীয় পণ্য

ঘরকে সুন্দর করে সাজাতে শো পিস একটি অপরিহার্য জিনিস। আর সেই শো পিস যদি দেশজ মোটিফের হয় তবে তা একদিকে যেমন আপনার রুচির পরিচয় বহন করবে। অন্যদিকে আপনার খরচও কিছুটা বাচিয়ে দিবে। দেশীয় নানা সরঞ্জামে তৈরী এসব শোপিসগুলো একদিকে আমাদের দেশীয় ঐতিহ্য আর সংস্কৃতিকে তুলে ধরে। অন্যদিকে ঘর সাজানোয় এনে দেয় দারূণ বৈচিত্রতা। আর দেশীয় পণ্য দিয়ে তৈরী শো পিসের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় আর নান্দনিক হচ্ছে মাটির শো পিস। আপনি নানা ভাবে আপনার ঘরে মাটির শো পিস রাখতে পারেন। যেমন বিছানার পাশে বা পড়ার টেবিলে একটা ল্যাম্পশেড দরকার? সাধারণ ল্যাম্পশেডের বদলে মাটির ল্যাম্পশেড ব্যবহার করুন। খাবার টেবিলে ডিনার সেট হিসেবে মাটির পণ্য ব্যবহার করুন। ঘরের কোণাগুলো খালি খালি আর মলিন লাগছে? কিছু সুন্দর সুন্দর মাটির পটারি দিয়ে ঘরের কোণাগুলো সাজিয়ে ফেলুন। আপনার অযত্নে পড়ে থাকা গাছগুলোকে নতুন সুন্দর কিছু মাটির টবে বসিয়ে দিন। দেখবে আপনার ঘর আর বারান্দার চেহারাই পালটে গেছে। এছাড়াও আপনি ঘর সাজাতে বাঁশ ও বেতের পণ্য ব্যবহার করতে পারেন। ঘরের একটা দেয়ালে বড় একটা বেতের আয়না ঝুলিয়ে দিন। ঘরটি বড় দেখানোর সাথে সাথে ব্যতিক্রমও দেখাবে। শুধু তাই নয়। আপনি আপনার ঘরের দেয়ালের শোভা বাড়াতে বাশি, তালপাতার পাখা, মুখোশ, ঝুলানো পুতুল সহ আরো নানারকম দেশীয় পণ্য ব্যবহার করতে পারেন।

সঠিক ফেব্রিক নির্বাচন

ঘরে দেশীয় আসবাবপত্র আর শো পিস তো আনলেন। এখন যদি এগুলোতে দামী বিদেশী ফেব্রিক ব্যবহার করেন তাহলে পুরো সাজটাই তো মাটি হয়ে যাবে। তাই দেশীয় আবহে ঘর সাজাতে গেলে সঠিক ফেব্রিক নির্বাচন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এখন বাংলাদেশে খুব সুন্দর সুন্দর ব্লক, বাটিক আর এপ্লিকের চাদর পাওয়া যায়। আপনি আপনার বাঁশ বা বেতের খাটে এই সব চাদর বিছিয়ে রাখতে পারেন। আবার ঘরের পর্দা হিসেবেও দেশী ফেব্রিক আর দেশী নকশা ব্যবহার করতে পারেন। ঘরের মেঝেতে কার্পেটের বদলে উজ্জ্বল ও রঙিন শতরঞ্জি বিছাতে পারেন। আসলে দেশীয় পণ্য দিয়ে ঘর সাজানর অপশন গুণে শেষ করা যাবে না। আপনাকে শুধু একটু কষ্ট করে খুজে বের করতে হবে আর মনের মাধুরী মিশিয়ে নিজের সুখের নীড়টাকে সাজিয়ে তুলতে হবে।

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

মন্তব্য করুন