আলু পাকোড়া

আলু পাকোড়া

পাকোড়া আমাদের খুবই প্রিয় একটা খাবার। বৃষ্টির দিনে সন্ধায়ে পাকোড়া না হলে যেন আমাদের চলেই না। নাস্তা হিসেবে পাকোড়া খুবই উপাদেয় খাবার।

পাকোড়া খুবই সহজ ভাবে বানানো যায় হাতের কাছে পাওয়া উপকরন দিয়েই। বাইরে বিভিন্ন দোকানে গরম গরম পাকোড়া পাওয়া যায়। যা হয় খুবই সুস্বাদু। কিন্তু বাইরে বানানো পাকোড়া সুস্বাদু হয় ঠিকই কিন্তু আনহাইজেনিক পরিবেশে বানানোর ফলে তআ সাস্থের জন্য হুমকি স্বরূপ।

এইজন্য যদি আপনি ঘরে বসে পাকোড়া বানান তাহলে সেইটা হবে হাইজেনিক পরিবেশে এবং সাস্থের জন্য ও ভাল।

পাকোড়া খুব সহজ একটি রেসিপি। পাকোড়া কয়েক রকম ভাবে বানানো যায়। যেমন কিমা পাকোড়া, নুডুলস পাকোড়া, আলু পাকোড়া। আজকে আমরা মুচমুচে আলু পাকোড়া এর সহজ রেসিপি দেখবো।

আলু পাকোড়া বানাতে যা যা লাগবেঃ

  • ১- আলু সিদ্ধ তিন টা মাঝারি সাইজের।
  • ২- হাফ কাপ পেয়াজ কুচি।
  • ৩- কাচা মরিচ ৩ থেকে ৪ টা।
  • ৪- ধনিয়া পাতা কুচি স্বাদ মত।
  • ৫- লবন পরিমান মত।
  • ৬- আদা বাটা হাফ চা চামুচ।
  • ৭- বেসন হাফ কাপ।
  • ৮- চালের গুরা অথবা কর্নফ্লাওয়ার এক চা চামুচ।
  • ৯- বেকিং পাউডার ওয়ান ফরথ চা চামুচ।
  • ১০- পানি দুই টেবিল চামুচ।
  • ১১- রেগুলার তেল পরিমান মত।
  • ১২- চাঁট মসলা স্বাদ মত।

আলু পাকোড়া বানানোর পদ্ধতিঃ

আলু পাকোড়া মিশ্রণ

  • প্রথমে একটি শুকনা বাটিতে আলু সিদ্ধ, পেয়াজ কুচি, ধনিয়া পাতা ও কাচা মরিচ নিতে হবে। পেয়াজ টা অবশ্যই চিকন করে কাটতে হবে।
  • এরপর পেয়াজ কুচি, ধনিয়া পাতা, কাচা মরিচ মাখিয়ে নিতে হবে ভাল করে।
  • এর মধ্যে এরপরে সিদ্ধ আলু গুলা অল্প অল্প করে ভেঙ্গে দিতে হবে। এই আলু গুলা চটকানো যাবে না। চটকালে সুন্দর হবে না আলু পাকোড়া গুলা। আস্তে আস্তে ভেঙ্গে ভেঙ্গে রাখতে হবে আলু গুলা।
  • এরপর পেয়াজ কুচি, কাচা মরিচ ও ধনিয়া পাতার মিশ্রণের মধ্যে আলু মিশাতে হবে। হাল্কা এক্তু মিক্স করতে হবে সব উপকরন গুয়াল চটকানো যাবে না।
  • এরপর এর মধ্যে বেসন দিতে হবে এবং
  • আলুর পাকোড়া টাকে ক্রিস্পি বানানোর জন্য একটু চালের গুরা দিতে হবে। এর ফলে পাকোড়া টি আর মুচমুচে হবে।

আলু পাকোড়া বাইন্ডিং

  • এখন আলুর পাকোড়া এর বাইন্ডিং এর জন্য বেকিং পাউডার দিতে হবে।
  • বেকিং পাউডার দেয়া হলে স্বাদ মত লবন দিতে হবে।
  • লবন দেয়ার পর হাল্কা করে মিশ্রণ টি মাখিয়ে নিতে হবে। কিন্তু বেশি চাপ দিয়ে জোরে মাখানো যাবে না।
  • এরপর অল্প একটু পানি দিতে হবে – বেশি না। যেকোনো পাকোড়া এর মিশ্রণে পানি খুব অল্প দিতে হয় এবং কাই টাকে হাল্কা আঠালো ভাবে রাখতে হয় তা না হলে পাকোড়া মুচমুচে হয় না।

আলু পাকোড়া ভাজা

  • এরপর যে কড়াইতে পাকোড়া ভাজব তাতে পরিমান মত ডুবো তেলে ভাজা যায় এমন পরিমান তেল নিব।
  • এরপর আস্তে আস্তে গোল গোল করে কাই টা নিয়ে তেলে ছেড়ে দিব। খুব বেশি শেপ দেয়া লাগবে না কেননা এইটা যত তেরাবেকা হবে তত দেখতে ভাল লাগবে।
  • তেল এর তাপমাত্রা অবশ্যই মিডিয়াম আচে রাখতে হবে।
  • এক পাশ হয়ে গেলে হাল্কা করে আস্তে আস্তে অল্প অল্প কড়াইয়ের তেল পাকোড়া গুলার উপরে দিয়ে দিতে হবে।
  • এর পর এক পাশ হাল্কা ব্রাউন হয়ে গেলে উল্টায়ে দিতে হবে এবং আর পাশ একই ভাবে ভেজে নিতে হবে।
  • দুই পাশ ভাজা হয়ে গেলে তুলে ফেলতে হবে।
  • হাত দিয়ে ভাংলেই বুঝা যাবে বাইরে মুচমুচে এবং ভেতরে নরম।

আলু পাকোড়া পরিবেশন

চাট মসলা অথবা হাল্কা বিট লবন ছরিয়ে দিয়েই পরিবেশন করতে পারবেন। বিট লবন অথবা চাট মসলা ছরালে কিন্তু আলু পাকোড়াটা অনেক মজাদার হয়। টম্যাটো সস অথবা চিলি সস দিয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম আলু পাকোড়া।

 

মন্তব্যসমূহ

আমি স্টুডেন্ট। পড়াশুনার পাশাপাশি টুকটাক লিখতে ভালবাসি।

১ টি মন্তব্য
  1. Reply চটপট বানান নুডলসের পাকোড়া | চটপট - এসো নিজে করি মার্চ ২০, ২০১৮ তারিখে ৭:১৭ অপরাহ্ন

    […] রকম ভাবেই বানানো যেতে পারে। কেউ কেউ সবজির পাকোড়া পছন্দ করেন। কেউ কেউ আবার মাংস পাকোড়া […]

মন্তব্য করুন