তৈলাক্ত ত্বকের জন্য তিনটি উপাদানের সহজ প্যাক

তৈলাক্ত ত্বক এর জন্য তিনটি উপাদানের সহজ প্যাক

তৈলাক্ত ত্বক মানেই সমস্যার বিশাল বেড়াজাল। আপনি যেভাবেই রূপচর্চা করেন না কেন তৈলাক্ত মুখের তেল বার বার ফিরে আসবেই। শুধু তাই না। তৈলাক্ত ত্বকের অতিরিক্ত তেল নিঃসরণের কারণে বার বার মুখ ধোয়ার পরও মুখ কিছুক্ষণের মধ্যেই আবারো অপরিস্কার হয়ে যায়। কারণ ত্বকের উপরে থাকা তেলে বাতাসের ময়লা আর ধুলো বালি আটকে যায়। আর এই ঘন ঘন ময়লা আটকে যাওয়ার ফলে সৃষ্টি হয় ব্রণ, একনে, ব্লাকহেডস আর হোয়াইট হেডস সহ নানা রকম ত্বকের সমস্যা। এজন্য তৈলাক্ত ত্বককে ভাল রাখার সর্বপ্রথম ও সর্বপ্রধান শর্ত হচ্ছে ত্বককে পরিস্কার রাখতে হবে।

তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারী মেয়েদের উচিত নিজের রোজকার রূপ রূটিনকে এমনভাবে সাজানো যেন সারাদিনে মুখে যে ময়লা জমবে তা ভাল ভাবে পরিস্কার হয়ে যায়। এবং এই পরিস্কার করার কাজটা যদি আমাদের ঘরে থাকা প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে করা যায় তাহলে তো আরো ভাল উপকার পাওয়া যাবে। আমি আজ এমনি একটি ফেস প্যাক নিয়ে কথা বলব। এই ফেস প্যাকটি যেমন তৈলাক্ত ত্বকের গভীরে গিয়ে ময়লা তুলে আনবে। তেমনি ত্বককে তার প্রয়োজনীয় পুষ্টিরও যোগান দেবে।

তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারী নারীরা যদি প্রতিদিন একবার করে এই প্যাকটি ব্যবহার করেন তাহলে তাদের মুখের অতিরিক্ত তেল নিঃসরণ আস্তে আস্তে কমে যাবে। আর যেহেতু তেল নিঃসরণ কমে যাবে তাই মুখে ব্রণ, একনে, ব্লাক আর হোয়াইট হেডস এর আক্রমণও কমে যাবে। কারণ আমরা সকলেই জানি এই সব সমস্যাই শরীরের অতিরিক্ত টক্সিন আর মুখের অতিরিক্ত ময়লার কারণেই সৃষ্ট হয়। শুধু তাই নয় এই প্যাকটির নিয়মিত ব্যবহার আপনার ত্বকের উপরিভাগ থেকে সান ট্যানের প্রলেপ তুলে দিয়ে ত্বককে উজ্জ্বলও করে তুলবে।

তবে এত সব সুবিধার মধ্যে সব থেকে বড় সুবিধা হচ্ছে এই প্যাকটি বানানো অনেক সহজ। এখনকার ব্যস্ত রুটিনে যখন নিজের জন্য একটু সময় বের করা অনেক কঠিন, তখন এরকম একটি ফেস প্যাক আপনাকে যে রূপচর্চায় যথেষ্ঠ আরাম দেবে সে কথা বলাই বাহুল্য। তাই চলুন দেরি না করে প্যাকটি বানাতে কি কি লাগে তা জেনে নেই। সেই সাথে প্যাকটি কিভাবে বানাবেন আর কিভাবে ব্যবহার করবেন তাও জেনে নেই।

তৈলাক্ত ত্বক এর সহজ প্যাকটি বানাতে যা যা লাগবে

  • বেসন ১ চা চামচ
  • মুলতানি মাটি ১ চা চামচ
  • গোলাপ জল ১/২ চা চামচ
  • টকদই ১ চা চামচ

তৈলাক্ত ত্বক এর সহজ প্যাকটি যেভাবে বানাবেন

প্রথমে একটা বাটিতে বেসন আর মুলতানি মাটি নিয়ে নিন। একটা চামচ দিয়ে নেড়ে মিশিয়ে নিন। এবার এতে টকদই ও গোলাপ জল দিয়ে দিন। খুব ভাল করে নেড়ে মিশিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন যেন কোন দলা দলা ভাব না থাকে। এবার প্যাকটি একটা পরিস্কার ব্রাশ দিয়ে মুখে আর গলার চামড়ায় লাগিয়ে নিন। এ অবস্থায় রেখে দিন ২৫ থেকে ৩০ মিনিট। এই সময়ের মধ্যে প্যাকটি একদম শুকিয়ে যাবে। তখন ভাল করে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ আর গলা পরিস্কার করে ফেলুন। ফেস প্যাকটি পরিস্কার করার আগে হাতে অল্প পানি নিয়ে মুখে আর গলার ফেস প্যাকের উপর লাগাবেন। ফেস প্যাকটি একটু ভিজা ভিজা হয়ে গেলে হাতের আঙুল দিয়ে খুব আস্তে আস্তে দুই মিনিট ধরে ম্যাসাজ করে নিন। এই ভাবে ম্যাসাজ করলে ত্বকের ময়লা আর অতিরিক্ত তেল এই ফেস প্যাকের সাথে উঠে আসবে। আর মুখ ও গলার চামড়া পরিস্কার করার পর আপনি পাবেন উজ্জ্বল, ফর্সা এবং তেলহীন ঝকঝকে একটা ত্বকের চমক।

আর এই ফেস প্যাক ব্যবহার করার পূর্বে একটা ব্যাপার অবশ্যই খেয়াল রাখবেন। মুখে এই ফেস প্যাকটি লাগানোর আগে অবশ্যই মুখ ও গলা ফেস ওয়াশ দিয়ে ধুয়ে পরিস্কার করে নিবেন। আর এই প্যাক লাগানো অবস্থায় কখনোই কথা বলবেন না।

 

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

১ টি মন্তব্য
  1. Reply তৈলাক্ত ত্বকের জন্য মুলতানি মাটির দারুণ একটি ফেস প্যাক | চটপট - এসো নিজে করি এপ্রিল ২৩, ২০১৮ তারিখে ১২:১৪ পূর্বাহ্ন

    […] তৈলাক্ত ত্বকের জন্য আমরা কত রকম প্রোডাক্টই না ব্যবহার করে থাকি। এগুলোর মধ্যে কোনটা দামী, আবার কোনটা অনেক বেশি দামী। আর এসব দামী দামী প্রোডাক্ট ব্যবহার করেও তৈলাক্ত ত্বকের একটা বড় সমস্যার সমাধাণ করা তেমন একটা সহজ হয়ে ওঠে না। তৈলাক্ত ত্বকের এই সমস্যাটি হচ্ছে ব্রণ ও একনের সমস্যা। এই সমস্যার বড় একটি সমাধান হচ্ছে মুলতানি মাটি। আজ আমি এই মুলতানি মাটি দিয়ে বানানো যায় এমন একটা ফেস প্যাক নিয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করব। […]

মন্তব্য করুন