মাত্র একটি উপাদানে দাতের দাগ দূর করুন

মাত্র একটি উপাদানে দাতের দাগ দূর করুন

নারী পুরুষ সকলেরই সৌন্দর্যের একটা বড় অংশ হল তার হাসি। আর এই হাসির সৌন্দর্য অনেকাংশেই নির্ভর করে দাতের সৌন্দর্যের উপর। সেই দাতই যদি ঝকঝকে সাদা না হয়ে বরং ময়লা দাগযুক্ত হয় তাহলে কি হবে? আমি বলছি কি হবে। দাতের দাগ আর অসুন্দর রূপ শুধু যে আপনার সুন্দর হাসিটিই নষ্ট করে দেবে তাই নয়। বিদঘুটে দাতের এই অসুন্দর হাসি আপনাকেই হয়ত লোক সমাগমে হাসির পাত্র করে তুলবে।

দাতের দাগ দূর করতে প্রিকশন

এখন দাতের দাগ দূর করবেন কিভাবে। প্রথমত দাত পরিস্কার রাখুন। নতুন করে আর দাতে দাগ হতে দেবেন না। দাতে দাগ সাধারণত ময়লা জমে জমেই হয়। তাই তিনবেলা খাবার খাওয়ার পর অবশ্যই দাত ভাল ভাবে ব্রাশ করবেন। আরপ্রতিবার কিছু খেলেই অবশ্যই খুব ভাল করে কুলকুচা করে নিবেন।

এবার আসি পুরোনো দাতের দাগ পরিস্কার করার ব্যাপারে। বেশিরভাগ মানুষই দাতের দাগ তোলার জন্য ডেন্টিস্টের কাছে ধরণা দিয়ে থাকেন। এখন আমি আপনি সবাই জানি ডেন্টিস্টের এক একটা সেশন মানেই বেশ কিছুটা টাকার কারবার। তাই দাতের দাগ দূর করতে শুরুতেই দাতের ডাক্তারের কাছে না গিয়ে বরং ঘরেই একটু চেষ্টা করে দেখা উচিত। আজ আমি আপনাদের এমনই একটি ঘরোয়া উপায়ের কথা বলব যার মধ্যমে আপনারা ঘরে বসেই দাতের দাগ দূর করার চেষ্টা করতে পারবেন।

দাতের দাগ দূর করার উপায়

ঘরে বসে দাতের দাগ দূর করতে আপনার একটি মাত্র বাড়তি উপকরণ লাগবে। সেটি হচ্ছে লবণ। হ্যা ঠিক ধরেছেন। আপনার রান্না ঘরের মশলার তাকে পরে থাকা নিত্য দিনের ব্যবহার্য বস্তু লবণ। এই একটি মাত্র উপাদানে আপনার দাতের দাগ ধীরে ধীরে কমতে শুরু করবে। আপনাকে শুধু এটি ব্যবহারের সঠিক উপায়টি অবলম্বন করতে হবে। উপায়টি খুবি সোজা। প্রতি দিন এক বার দাত ব্রাশ করবার সময় আগের মতই ব্রাশে পেস্ট নিন। এক চিমটি লবণ এইবার ঐ পেস্টের উপর ছড়িয়ে দিন। তারপর রোজ যেভাবে দাত ব্রাশ করেন সেভাবেই দাত ব্রাশ করে নিন। এরপর ভাল করে কুলকুচা করে দাত পরিস্কার করে নিন। লবণ খুব ভাল প্রাকৃতিক টুথ স্ক্রাবার হিসেবে কাজ করে। আপনি যদি রোজ দানাদার লবণ একবার করে টুথ পেস্টের সাথে ব্যবহার করেন তাহলে আপনার দাতের দাগ আস্তে আস্তে উঠে যাবে।

দাতের দাগ দূর করার সতর্কতা

তবে একটা বিষয় খেয়াল রাখবেন। কোন কিছুই অতিরিক্ত করা ঠিক কাজ নয়। ভাল ফল পাবার জন্য প্রত্যেক বার ব্রাশ করার সময়ই লবণ ব্যবহার করার প্রয়োজন নেই। খুব বেশি স্ক্রাব করলে দাতের উওরের এনামেলের স্তর নষ্ট হয়ে যাবে। তখন দাতের চকচকে ভাব নষ্ট হয়ে যাবে। এক সপ্তাহ পর্যন্ত এই ভাবে পেস্টের সাথে লবণ মিশিয়ে দাত পরিস্কার করে দেখুন। দাগ যদি সেরকম সিরিয়াস না হয় তাহলে এই এক সপ্তাহেই কমে যাবে। আর এক সপ্তাহে যদি দাতের দাগ দূর না হয় তাহলে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করাই ভাল।

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

১ টি মন্তব্য
  1. Reply কেমন হবে কর্মস্থলের আদবকেতা? | চটপট - এসো নিজে করি এপ্রিল ৬, ২০১৮ তারিখে ৮:৫৪ অপরাহ্ন

    […] সঠিক সময়ে অফিসে আসতে চেষ্টা করুন। শহরের […]

মন্তব্য করুন