দারুণ মজার ভেটকি মাছের চপ

দারুণ মজার ভেটকি মাছের চপ

প্রোটিনের সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর উতস হচ্ছে মাছ। অন্যান্য প্রোটিনের উতস যেমন গরুর মাংস বা মুরগির মাংস অতিরিক্ত খেলে তা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতি ডেকে আনতে পারে। অতিরিক্ত গরুর মাংস তো আপনার ডায়াবেটিস, কোলেস্টেরল আর ব্লাড প্রেসার সব কিছুই বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু মাছের ক্ষেত্রে এমন কোন সমস্যা নেই। আর মাছে যে শুধু প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন আছে তা কিন্তু নয়। মাছে একই সাথে প্রচুর আয়রন আর মিনারেলসও থাকে। তাই আমাদের উচিত নিয়মিত খাদ্য তালিকায় মাছের সংযোজন করা।

কিন্তু বেশির বাগ বাসাতেই সদস্যদের মধ্যে মাংসের যে জনপ্রিয়তা থাকে সেটা মাছের ক্ষেত্রে থাকে না। ফলাফল এত রকম উপকারিতা সত্ত্বেও বাসায় মাছ রান্না করা হয় না আর খাওয়াও হয় না। সেক্ষেত্রে আপনি মাছের চপ ট্রাই করে দেখতে পারেন। আজকে আমি কিভাবে ভেটকি মছের চপ বানাতে হয় তা নিয়ে আলোচনা করব। এই চপটি বানাতে খুব বেশি সময় লাগে না। এই রেসিপিটিতে ব্যবহৃত উপকরণ গুলোও অনেক সহজে পাওয়া যায়। কিন্তু এটা খেতে অত্যন্ত সুস্বাদু। প্রথম প্রথম তো খেয়ে বোঝাই কঠিন হয়ে যায় যে এটা মাছের চপ নাকি চিকেন চপ। এজন্য বাড়ির জেদী বাচ্চাটাকেও অনায়াসে এই মাছের চপ খাইয়ে দেয়া যায়।

ভেটকি মাছের চপ বানাতে যা যা লাগবে

মাছের ভর্তা বানাবার উপকরণ

  • ভেটকি মাছের পেটি ৩টি
  • আলু বড় ১টি
  • পেঁয়াজ মিহি করে কুচি করা ১টি
  • রসুন মিহি করে কুচি করা ১ চা চামচ
  • কাঁচা মরিচ মিহি করে কুচি করা ৫টি
  • ধনেপাতা মিহি করে কুচি করা ২ টেবিল চামচ
  • লবণ প্রয়োজন মত
  • হলুদ গুড়া ১/২ চা চামচ
  • চিনি ১/৪ চা চামচ
  • ভাজা জিরা গুড়া ১ চা চামচ
  • ভাজা ধনে গুড়া ১/২ চা চামচ
  • কালো গোল মরিচ গুড়া ১/৪ চা চামচ
  • সাদা গোল মরিচ গুড়া ১/৪ চা চামচ
  • জোয়ান গুরা ১/৪ চা চামচ
  • ভাজা গরম মশলা গুড়া ১/২ চা চামচ
  • সরিষার তেল ২ টেবিল চামচ

ব্যাটার তৈরীর উপকরণ

  • কর্ণফ্লাওয়ার ৪ টেবিল চামচ
  • ডিম ২টি
  • লবণ সামান্য
  • কালো গোলমরিচ গুড়া সামান্য
  • বেকিং পাউডার ১/৪ চা চামচ
  • পানি ২ চা চামচ
  • ব্রেড ক্রাম্ব প্রয়োজন মত

বাকি যা যা লাগবে

  • সয়াবিন তেল ভাজার জন্য
  • টমেটো সস পরিবেশনের জন্য
  • লেটুস পাতা সাজাবার জন্য

ভেটকি মাছের চপ বানাবার পদ্ধতি

১ম ধাপ

প্রথমে ভেটকি মাছের পেটি গুলোতে লবণ আর হলুদ গুড়া মেখে নিন। প্যানে তেল গরম করে হালকা করে ভেজে নিন। খুব বেশি কড়া করে মাছ গুলো ভাজবেন না। মাছ ভাজা হয়ে গেলে নামিয়ে কাটা বেছে নিন। এবার হাত দিয়ে অথবা পটেটো ম্যাশার দিয়ে খুব সুন্দর করে ভর্তা করে নিন।

আলু সিদ্ধ করে নিন। সিদ্ধ করা আলুও মিহি করে ভর্তা করে নিন। খেয়াল রাখবেন যেন কোন দলা দলা আলুর টুকরা না থাকে। এবার ভর্তা করা আলু আর মাছ একসাথে মিশিয়ে নিন।

২য় ধাপে

এবার একটা প্যানে সরিষার তেল গরম করুন। তেল গরম হলে পেঁয়াজ কুচি ভাজতে দিন। একই সাথে রসুন কুচি আর কাঁচা মরিচ কুচিও দিয়ে দিন। লাল লাল করে ভেজে নিন।

এবার যেই পাত্রে ভর্তা করে রেখেছেন তার একপাশে এই ভাজা মশলা সরিষার তেল সহ নামিয়ে নিন। এই মশলা সাথে একে একে ভাজা জিরা গুড়া, ভাজা ধনে গুড়া আর জোয়ান গুড়া মিশিয়ে দিন। একই সাথে সাদা গোল মরিচ গুরা আর কালো গোলমরিচ গুড়াও উপর থেকে ছড়িয়ে দিন। এবং ধনেপাতা কুচি ও ভাজা গরম মশলা গুড়োও যোগ করে দিন এসময়। পরিমাণ মত লবণ দিন। এবার হাত দিয়ে আগে এই তেল, ভাজা মশলা, গুরা মশলা আর লবণের মিশ্রণটা খুব ভাল ভাবে মেখে নিন। তারপর মাছ ভর্তা আর আলুর ভর্তার মিশ্রণে এই মশলা যোগ করে নিন। এবারো হাত দিয়ে খুব ভাল করে মেখে নিন। মাখানো হয়ে গেলে গোল গোল চপের আকারে গড়ে রাখুন।

৩য় ধাপ

একটা পাত্রে আগে ডিম দুটো ভাল করে ফেটে নিন। এর মধ্যে একে একে কর্ণফ্লাওয়ার, বেকিং পাউডার, কালো গোল মরিচ গুড়া আর লবণ মিশিয়ে আবারো ফেটে নিন। এবার চপ গুলো এই ব্যাটারে ডুবিয়ে ব্রেড ক্রাম্বে গড়িয়ে নিন। সব গুলো চপের উপর ব্রেড ক্রাম্বের কটিং লাগানো হয়ে গেলে এই অবস্থায় ফ্রিজে রেখে দিন দুই ঘন্টা থেকে তিন ঘন্টা। আর যদিডীপে রাখেন তাহলে আধা ঘন্টা রাখলেই হবে।

৪র্থ ধাপ

এবার করাতে সয়াবিন তেল গরম করুন। তেল গরম হয়ে গেলে মাছের চপ গুলি তেলে ছেড়ে দিন। গোল্ডেন ব্রাউন করে ভেটকি মাছ্র চপ গুলো ভেজে নিন। সার্ভিং ডিশে টমেটো সস আর লেটুস পাতা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

 

 

 

 

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

মন্তব্য করুন