ব্রণ এর জন্য মিক্স মিরাকেল ফেস প্যাক
অন্যান্য

ব্রণ এর জন্য মিক্স মিরাকেল ফেস প্যাক

সুন্দর হওয়ার জন্য সবাই কত কিছু না করে। সঠিক ভাবে রূপচর্চা না করলে সুন্দর ত্বক ধরে রাখা যায় না, ত্বক হয়ে যায় রুক্ষ, নির্জীব ও প্রাণহীন। এই রুক্ষ ত্বক ঠিক করার জন্য দরকার সঠিক ফেস প্যাক। আপনার ত্বক অনুযায়ী সঠিক কিছু উপাদান ব্যবহার করে নিয়মিত যদি রূপচর্চা ধরে রাখতে পারেন তাহলে আপনার ত্বক সব সময় সুন্দর থাকবে। আমাদের ত্বক এর বিভিন্ন সমস্যা গুলোর মধ্যে একটি সমস্যা হল ব্রণ। বিশেষ করে এই গরমে। যাদের সেনসিটিভ ও তৈলাক্ত স্কিন তাদের জন্য গরম কাল আরও বিভীষিকা ময়। কেননা গরমে বাইরের ধুলাবালি, রোদ সব কিছু এর কারনে ত্বক হয়ে পরে নির্জীব।

ব্রন এর সমস্যায় আমরা কম বেশি সবায় ভুগে থাকি। আর গরম কাল হলে এই ব্রণ এর প্রাদুর্ভাব আরও বেরে যায়। ব্রণ হওয়ার মুল কারন হল অসাস্থকর খাবার, অপরিষ্কার থাকা, নিয়মিত গোসল না করা, বাইরে থেকে এসে ফেস প্রপার ভাবে ক্লিন না করা, দিনে আট গ্লাসের কম পানি খাওয়া, মাত্রাতিরিক্ত চিন্তা করা, মানুষিক চাপ নেওয়া, ঘুম কম হওয়া, অ্যালার্জি এর সমস্যা, ভাজা ও মসলা খাবার বেশি খাওয়া, মাথা এর তালু পরিষ্কার না রাখা, মুখে নখ লাগানো। এছাড়াও অনেকের ইন্টারনাল সমস্যা থাকে যেমন হরমনাল সমস্যা।

এই গরম কালে অতিরিক্ত গরমের কারনে ঘাম এর জন্য মুখ সহ সারা শরীরের তৈলাক্ত গ্রন্থির ছিদ্র বড় হয়ে যায়, লোম কুপ খুলে যায়। আর বাতাসে থাকা এই ধুলাবালি সহজেই তেল গ্রন্থি এর সাথে আটকে যায় এবং তেল গ্রন্থি এর ছিদ্র বন্ধ করে দেয়। যেখানে আস্তে আস্তে ব্যাকটেরিয়া জন্মায় এবং ব্রণ সৃষ্টি করে। আর ব্রন হলেই তা চুলকায়, ফুলে যায়। নখ দিয়ে খুটে আমরা তা বের করতে গিয়ে আরও খারাপ অবস্থা করি এবং স্কিন এ দাগ হয়ে যায়।

এই স্কিন ঠিক করার জন্য আমরা ব্যবহার করি বাইরের সব কেমিক্যাল যুক্ত প্রোডাক্ট। যা আমাদের স্কিন এর আরও ক্ষতি করে। বাসায় বসে রান্না ঘরে পাওয়া যায় এমন প্রাকিতিক উপাদান ব্যবহার করেই কিন্তু পাওয়া যায় সুন্দর ও দাগহীন স্কিন। আসুন দেখে নেই ব্রন দূর করার জন্য প্রাকিতিক উপায়ে বানানো মিরাকেল ফেস প্যাক।

ব্রণ এর জন্য মিক্স মিরাকেল ফেস প্যাক বানানোর জন্য যা যা লাগবেঃ

  • ১- মুসুর এর ডাল গুড়া ১ চা চামুচ।
  • ২- বেসন ১ চা চামুচ।
  • ৩- রক্ত চন্দন গুড়া হাফ চা চামুচ।
  • ৪- মুলতানি মাটি গুড়া ২ চা চামুচ।
  • ৫- গোলাপ এর পাপড়ি গুড়া ১ চা চামুচ।
  • ৬- আমন্ড বাদাম গুড়া ২ টেবিল চামুচ।
  • ৭- বেবি পাউডার ১ চা চামুচ।
  • ৮- বেকিং সোডা হাফ চা চামুচ।
  • ৯- মিল্ক পাউডার ১ চা চামুচ।
  • ১০- গোলাপ জল পরিমান মত।
  • ১১- টক দই পরিমান মত।
  • ১২- ডিম এর সাদা অংশ ২ চা চামুচ।
  • ১৩- কয়েক ফোটা এসেনশিয়াল অয়েল।
  • ১৪- শঙ্খ চূর্ণ গুড়া হাফ চা চামুচ।
  • ১৫- লেবু এর রস ২ চা চামুচ।
  • ১৬- চাল এর গুড়া এক চা চামুচ।

ব্রণ এর জন্য মিক্স মিরাকেল ফেস প্যাক বানানোর পদ্ধতিঃ

এই মিক্স মিরাকেল ফেস প্যাক টা বানানোর কয়েকটা ধাপ আছে।

প্রথম ধাপঃ

প্রথমে একটা পরিষ্কার বাটি তে একে একে মুসুর এর ডাল গুড়া, বেসন, রক্ত চন্দন, মুলতানি মাটি, গোলাপ এর পাপড়ি গুড়া, আমন্ড বাদাম গুড়া, শঙ্খ চূর্ণ গুড়া, চাল এর গুড়া, মিল্ক পাউডার গুড়া ও বেবি পাউডার নিতে হবে পরিমান মত। এইখানে নেয়া প্রতিটি উপাদান ত্বক কে গভীর থেকে পরিষ্কার করে, ত্বক এর ব্রন সৃষ্টি কারি বিভিন্ন দাগ দূর করে এবং ত্বক কে ফর্সা করে তোলে। এর মধ্যে আছে মুসুর এর ডাল, বেসন, রক্ত চন্দন ও মুলতানি মাটি গুড়া, চাল এর গুড়া যা যুগ যুগ ধরে ব্যবহার করা হয় রূপচর্চা তে। এই উপাদার গুলো নিয়মিত ব্যবহার এ ত্বক ফর্সা করে। শঙ্খ চূর্ণ গুড়া যা স্কিন এর দাগ দূর করে এবং স্কিন কে ফর্সা করে ও লাল একটা আভা দেয়। আমন্ড পাউডার স্কিন এর দাগ দূর করে এবং স্কিন কে সফট করে। আমন্ড পাউডার ব্যবহার করার ফলে স্কিন বেবি সফট হয়। এতে আছে ব্লিচিং উপাদান যা স্কিন কে ফর্সা ও সফট করে। এবং অনেক সুন্দর করে এক্সফলিএট করে। স্কিন এর মরা চামড়া উঠিয়ে নেয়। এই উপাদান গুলো সব মিশিয়ে একটা এয়ার টাইট কৌটায় ও সংরক্ষণ ও করা যাবে এবং এই মিশ্রণ ৩ মাস ধরে ব্যবহার করা যাবে।

দ্বিতীয় ধাপঃ

সব উপাদান এর মিস্রন টা থেকে ২ টেবিল চামুচ পরিমান মিস্রন একটা বাটি তে নিতে হবে। নেয়ার পর এর মধ্যে ডিম এর সাদা অংশ ২ চা চামুচ নিতে হবে। ডিম এর সাদা অংশ স্কিন এর জন্য অনেক ভাল। স্কিন কে ফর্সা করে ডিম এর সাদা অংশ। পোর সমস্যা থাক্লেও সেইটা ডিম এর সাদা অংশে দূর হয়। ডিম এর সাদা অংশ ব্লাকহেডস ও হোয়াইট হেডস কন্ট্রোল করে। এরপর এর মধ্যে লেবু এর রস দিতে হবে। লেবু স্কিন এর জন্য প্রাকিতিক ব্লিচ হিসেবে কাজ করে। স্কিন এর দাগ এবং স্কিন কে ফর্সা করার জন্য এইটা খুবই কার্যকরী একটা উপাদান। লেবু এর মধ্যে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা স্কিন এ ব্রন সৃষ্টি কারি ব্যাকটেরিয়া কে মেরে ফেলে যার কারনে স্কিন এ ব্রন হয়না। তবে যদি লেবু তে অ্যালার্জি থাকে তাহলে লেবু বাদ দিবেন। এরপর এর মধ্যে বেকিং সোডা দিবেন। বেকিং সোডা ও লেবু মিক্স হয়ে বুদ বুদ তৈরি করবে কিন্তু কিছুক্ষন পর তা ঠিক হয়ে যাবে। স্কিন এর দাগ দূর করার জন্য ও স্কিন কে প্রপার ভাবে ক্লিন করার জন্য বেকিং সোডা অনেক উপকারি। স্কিন এর বিভিন্ন স্পট ও দূর করে বেকিং সোডা।

এরপর এর মধ্যে দিতে হবে টক দই। টক দই যুগ যুগ ধরে রূপচর্চায় ব্যবহার করা হয়। টক দই এ আছে ব্লিচিং প্রপার্টি যা স্কিন কে প্রাকিতিক ভাবে ফর্সা করে, নিওমিত ব্যবহার করার ফলে স্কিন এর দাগ দূর হয়। এর মধ্যে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা স্কিন কে ক্লিন করে স্কিন এর মধ্যে একটা লাল আভা দিবে, স্কিন এর অ্যালার্জি দূর করবে। এরপর এর মধ্যে দিতে হবে কয়েক ফোটা এসেনশিয়াল অয়েল। এসেনশিয়াল অয়েল স্কিন এর দাগ দূর করে ও স্কিন কে ফর্সা করে।

তৃতীয় ধাপঃ

সব উপাদান মিক্স করে ফ্রিজ এ রেখে দিতে হবে আধা ঘণ্টা। এর পর আধা ঘণ্টা পর ফ্রিজ থেকে বের করে নিতে হবে। প্রথমে মুখ ভাল করে ধুয়ে নিতে হবে। এরপর মিক্স ফেস প্যাক টি লাগাতে হবে। একটু বেশি করে লাগিয়ে নিতে হবে। এরপর শুখিয়ে গেলে হাল্কা গরম পানি দিয়ে প্যাক টি উঠিয়ে ফেলতে হবে। উঠানোর সময় আঙ্গুল দিয়ে হাল্কা বৃত্তাকার ভাবে ঘষে ঘষে তুলতে হবে। এরপর ভাল একটা ক্রিম লাগিয়ে নিতে হবে। এই একটা প্যাক যথেষ্ট প্রতিদিন ব্যবহার করলে স্কিন এর সকল দাগ দূর হয়ে যাবে এবং স্কিন হবে ফর্সা ও সুন্দর। এবং এই প্যাকটা বানিয়ে ফ্রিজ এ রেখেও ৪ দিন পর্যন্ত ব্যবহার করা যায়।

 

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

মন্তব্য করুন