মজাদার আলু পোস্ত রেসিপি

মজাদার আলু পোস্ত রেসিপি

হাজার রকম সবজির ভীড়ে সম্ভবত আলুই এমন একটা সবজি যেটা ছোট বড় সবাই কম বেশি পছন্দ করে। আর আমার তো অনে হয় আলু হচ্ছে একমাত্র সবজি যেটা দিয়ে অজস্র রকমের রেসিপি বানানো যায়। আলু দিয়ে যত রকমের ভ্যারাইটির খাবার বানানো যায় অন্য কোন সবজি দিয়ে তা করা যায় না। আলু যে শুধু নাস্তা বা মেইন কোর্স তৈরীতে ব্যবহার করা যায় তাই না। আলু দিয়ে কিন্তু দারুণ দারুণ ডেজার্টও বানানো যায়। তবে আজ আলু দিয়ে বানানো কোন ডেজার্ট নিয়ে কথা বলব না। আজ আলু দিয়ে বানানো যায় এমন একটি মজাদার ডিশের রেসিপি শেয়ার করব। এটি হচ্ছে মজাদার আলু পোস্ত রেসিপি।

আলু পোস্ত একটি বাঙ্গালী খাবার হলেও এটি কিন্তু আমাদের দেশীয় কোন খাবার নয়। এটি মূলত ভারতের পশ্চিম বঙ্গের বাঙ্গালিদের মধ্যে বহুল প্রচলিত অতি জনপ্রিয় একটি খাবার। সাধারণত গরম গরম সাদা ভাতের সাথেই এই আলু পোস্ত খাওয়া হয়ে থাকে। তবে অনেকেই রুটি দিয়েও য়ালু পোস্ত বেশ তৃপ্তি নিয়েই খান। আসুন কিভাবে এই মজাদার আলু পোস্ত বানাতে হয় তা দেখে নেই। তবে তার আগে এই আলু পোস্ত বানাতে কি কি উপকরণ লাগবে তা দেখে নেয়া যাক।

আলু পোস্ত বানাতে যা যা লাগবে

পোস্ত পেস্ট বানান্তে যা যা লাগবে

  • পোস্ট ৩ টেবিল চামচ
  • পানি ১/২ কাপ ভিজানোর জন্য
  • পানি ১ টেবিল চামচ বাটার জন্য
  • কাঁচা মরিচ ১টি

মূল রান্নার জন্য যা যা লাগবে

  • আলু দুটি বড় সাইজের প্রায় ৩০০ গ্রাম
  • সরষের তেল ৩ টেবিল চামচ
  • আস্ত কালো জিরা ১/২ চা চামচ
  • আস্ত কালো সরষে ১/২ চা চামচ
  • আস্ত লাল সরষে ১/২ চা চামচ
  • আস্ত শুকনা মরিচ ২টি
  • আস্ত কাঁচা মরিচ ২টি
  • লবণ পরিমাণ মত
  • হলুদ গুড়া ১/২ চা চামচ
  • চিনি খুব অল্প পরিমাণ

আলু পোস্ত যেভাবে বানাতে হবে

১ম ধাপ

আলু পোস্ত বানানো শুরু করার আগে পোস্ত বাটা রেডি করতে হবে। এর জন্য যেদিন আলু পোস্ত রান্না করবেন তার আগের দিন রাতে চেষ্টা করবেন পোস্ত পানিতে ভিজিয়ে রাখতে। যদি তা সম্ভব না হয় তাহলে রান্না শুরু করার অন্তত চার থেকে পাঁচ ঘন্টা আগে পস দানা ভিজিয়ে রেখে দিন।

পোস্ত দানা পানিতে ভিজে নরম হয়ে গেলে একটা ছাকনীতে ছেকে পানিটা ফেলে দিন। এবার একটা ব্লেন্ডারে কিংবা শীল পাটায় এই ভিজে নরম হয়ে যাওয়া পোস্ত দানা নিয়ে নিন। এর সাথে একতা কাঁচা মরিচ আর এক টেবিল চামচ পানি যোগ করে দিন। এরপর পোস্ত দানা আর কাঁচা মরিচ এক সাথে বেটে নিন।

২য় ধাপ

আলু গুলো ধুয়ে পরিস্কার করে বড় বড় টুকরো করে কেটে নিন। কড়াতে সরষের তেল গরম করতে দিন। সরষের তেল গরম হয়ে গেলে প্রথমে আস্ত শুকনা মরিচ ফোড়ন দিন। আস্ত শুকনা মরিচ ফোড়ন দেবার সময় হাত দিয়ে মাঝ খান থেকে ভেঙ্গে দেবেন। এরপর একে একে আস্ত কালো জিরা, আস্ত কালো সরষে আর আস্ত লাল সরষে গরম সরষের তেলে ফোড়ন দিন। সরষের তেল থেকে আস্ত মশলা গুলোর ফোড়নের সুন্দর একটা গন্ধ বের হবে। তখন কেটে রাখা আলু গুলো দিয়ে দিন। উপর থেকে একটু হলুদ গুড়া ছড়িয়ে দিন। গরম তেলে আলুর টুকরো গুলো একটু মচমচে করে ভেজে নিন।

৩য় ধাপ

আলুর টুকরো গুলো লালচে লালচে মত হয়ে গেলে আগে থেকে বেটে রাখা পোস্ত্ মিশ্রণটা ঢেলে দিন। ভাল করে নেড়ে চেরে ভাজা আলুর সাথে মিশিয়ে নিন। অল্প পানি যোগ করে দিন। এই সময়ে পরিমাণ মত লবণ এবং সামান্য চিনি যোগ করে দিন। পরিমাণ মত পানি দিন। পানি ফুটে ওঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। পানি ফুটে উঠলেআস্ত কাঁচা মরিচ গুলা দিয়ে দিন। এরপর চুলার জ্বাল একদম কমিয়ে দিন। ঢাকনা দিয়ে কড়াটা ঢেকে দিন। আলু পোস্ত সম্পূর্ণ রান্না না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে থাকুন। আলু পোস্তের ঝোল একদম শুকিয়ে পোস্ত বাটা যখন আলুর গায়ে গায়ে একদম মাখা মাখা হয়ে যাবে তখন চুলা বন্ধ করে দিন। রেডি আপনার মজাদার আলু পোস্ত। একটা সার্ভিং ডিশে ঢেলে গরম গরম ভাত কিংবা পরোটার সাথে সার্ভ করুন এই মজাদার আলু পোস্ত।

 

 

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

মন্তব্য করুন