আমের আইসক্রীম

আমের আইসক্রীম

পাকা আম এমন একটা ফল যেটা এমনি এমনি শুধু শুধু খেতেই ভাল লাগে। চিন্তা করে দেখুন এই আম দিয়ে যদি নানা রকম ডেজার্ট তৈরী করা হয় তাহলে খেতে কতই না মজা লাগবে। আমাদের ওয়েবসাইটে আপনি বিভিন্ন ধরণের আম দিয়ে বানানো ডেজার্ট রেসিপি পেয়ে যাবেন। যেমন আম পানাকোট্টা, আম কুলফি, আমের পায়েস কিংবা ভাপা আম দই। এই সমস্ত আম দিয়ে বানানো ডেজার্টের মধ্যে আজ আমি আর একটি আমের ডেজার্ট রেসিপি যোগ করব। সেটি হচ্ছে মজাদার আমের আইসক্রীম।

আমের আইসক্রীম আমার বানানো অতি সহজ রেসিপি গুলোর মধ্যে একটা। আর এটি বানাতে খুব বেশি উপকরণ এরও দরকার হয় না। মাত্র চারটি থেকে পাঁচটি উপকরণ ব্যবহার করেই এই মাআমের আইসক্রীম বাসায় বসেই বানিয়ে ফেলা যায়। আর এই উপকরণ গুলোও অনেক সহজলভ্য। যদি এগুলো এখন আপনার কাছে নাও থাকে তবে আপনি বাজারর যে কোন মুদি দোকান থেকে এগুলো সহজেই কিনে নিতে পারবেন। আর এই আমের আইসক্রীম বানাতে খুব বেশি কষ্টও হয় না। শুধু সঠিক নিয়মে সব উপকরণ মিশিয়ে ফ্রিজে বসিয়ে দিলেই হল। আইসক্রীম রেডি। চলুন দেরি না করে কি কি উপকরণ দিয়ে কিভাবে আমের আইসক্রীম বানাতে হবে তা দেখে নেই।

আমের আইসক্রীম বানাতে যে যে উপকরণ দরকার হয়

  • পাকা বড় আম ২টি
  • লিকুইড দুধ ১ কাপ
  • গুড়া দুধ ১ কাপ
  • ফ্রেশ ক্রীম ১ কাপ
  • চিনি ১/২ কাপ

আমের আইসক্রীম যে পদ্ধতিতে বানাতে হবে

১ম ধাপ

আমের আইসক্রীম বানাবার জন্য অবশ্যই হিমসাগর কিংবা ল্যাঙ্গড়া আম ব্যবহার করতে হবে। কারণ এই দুটি আম তুলনামুলক ভাবে বেশি মিষ্টি হয়ে থাকে। আম খোসা ছাড়িয়ে ছোট ছোট টুকরা করে কেটে নিতে হবে। এরপর ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এক কাপ পরিমাণ ব্লেন্ড করা আম লাগবে। দুটো বড় আম ব্লেন্ড করলে আপনি মোটামুটি এক কাপ পরিমাণ আমের পিউরি পেয়ে যাবেন।

২য় ধাপ

আম ব্লেন্ড করে হয়ে গেলে ব,এন্ডারে আমের পিউরুর মধ্যে চিনি যোগ করতে হবে। আম এমনিতেই মিষ্টি ফল। তাই আমি হাফ কাপ চিনি যোগ করেছি। তবে আপনি যদি মিষ্টি বেশি পছন্দ করেন তাহলে আরো ১/৪ কাপ কিংবা ১/২ কাপ চিনি যোগ করতে পারেন। চিনি যোগ করার পর গুড়া দুধ আর লিকুইড দুধ যোগ করতে হবে। খুব ভাল করে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এমন ভাবে ব্লেন্ড করবেন যাতে করে চিনি যেন একদম গলে যায় এবং খুব স্মিথ একটা পেস্ট তৈরী হয়। এই ব্লেন্ড করা আম ও দুধের মিশ্রণের মধ্যে যেন কোন লাম্পস না থাকে সে বিষয়ে খুব সতর্ক থাকতে হবে।

৩য় ধাপ

এই বার একটা বড় মিক্সিং বোলে ফ্রেশ ক্রীম নিতে হবে। একটা এগ বিটার দিয়ে বেশ কিছুক্ষণ এই ফ্রেশ ক্রীম বিট করতে হবে ভাল করে। ফ্রেশ ক্রীম বিট করা হয়ে গেলে এর মধ্যে আগে থেকে ব্লেন্ড করা আম ও দুধের মিশ্রণ থেকে অল্প অল্প করে যোগ করতে হবে। সেই সাথে খুব আস্তে আস্তে একটা বড় চামচ দিয়ে বিট করা ফ্রেশ ক্রীমের সাথে মিশাতে হবে। খুব জোরে জোরে বিট করে মিশাতে যাবেন না। তাহলে ফ্রেশ ক্রীমের মধ্যে যে বাতাস ঢেকে গেছে তা বের হয়ে যাবে। আর এরকম হয়ে গেলে আইসক্রীম সফট হবে না। সক্ত হয়ে যবে। একি ভাবে সম্পূর্ণ আম ও দুধের মিশ্রণ বিট করা ফ্রেশ ক্রীমের সাথে সময় নিয়ে মিশিয়ে ফেলুন। ইচ্ছা হলে কালারের জন্য খুব সামান্য হলুদ রঙ যোগ করতে পারেন। তবে আম পাকা হলে এমনিতেই আইসক্রিমে একটা সুন্দর রঙ এসে যাবে।

৪র্থ ধাপ

এই বার যে পাত্রে আইসক্রীম বসাবেন সেই পাত্রে এই আম, দুধ ও ফ্রেশ ক্রীমের মিশ্রণ ঢেলে দিতে হবে। ডিপ ফ্রিজে জমতে দিতে হবে। দুই থেকে তিন ঘন্টা পর আমের আইসক্রীম মোটামুটি আধা জমা হলে বের করে নিতে হবে। আর এক বার হালকা বিট করতে হবে। তারপর আবার আইসক্রীম বক্সে ঢেলে জমতে দিতে হবে। ছয় থেকে সাত ঘন্টার জমে রেডি হয়ে যাবে মজাদার আমের আইসক্রীম।

 

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

১ টি মন্তব্য
  1. Reply ম্যাঙ্গো ক্যারামেল পুডিং | চটপট - এসো নিজে করি জুলাই ২৪, ২০১৮ তারিখে ১:৪৩ অপরাহ্ন

    […] তো কম বেশি সবারই ভরপুর খাওয়া হচ্ছে। আম দিয়ে তৈরি বিভিন্ন ডেজার্ট আইটেমও […]

মন্তব্য করুন