হাতের কাছের জিনিস দিয়েই রূপচর্চা।

ত্বক ভালো রাখতে ক্যামিকেল যুক্ত প্রডাক্টের চেয়ে শতগুণ বেশি কার্যকর হতে পারে হাতের কাছে থাকা প্রাকৃতিক উপাদান। আজ দেখে নিবো কিভাবে হাতের নাগালে থাকা উপাদান দিয়ে যত্ন নিবেন ত্বকের।

এলোভেরা ও লেবুর রস ঃ

এলোভেরা ও লেবুর রস দুটোই ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। লেবুর রস প্রাকৃতিক ব্লিচিং হিসেবে কাজ করে।

ব্যবহারবিধিঃ

এক টেবিল চামচ লেবুর রস ও এক টেবিল চামচ এলোভেরা জেল একসাথে মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন আধা ঘন্টার মতো। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন ।নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক উজ্জ্বল হবে এবং কালো দাগ একদম মিলিয়ে যাবে।

পাউরুটি ও মিল্কক্রিম ঃ

আমাদের সবার ঘরেই পাউরুটি থাকে। খাওয়ার পাশাপাশি স্কিন ভালো রাখতেও দারুণ কাজ দিবে পাউরুটি।

ব্যবহারবিধিঃ

দুই স্লাইস পাউরুটি ও এক টেবিল চামচ মিল্ক ক্রিম নিন। পাইরুটির মাঝের অংশ ও মিল্কক্রিম একসাথে ব্লেন্ড করে প্যাক বানিয়ে নিন। এবার এই প্যাক মুখে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিটের মতো৷ এরপর একটি তুলা ভিজিয়ে সার্কুলার মোশনে ম্যাসেজ করে প্যাক তুলে আনুন।

পাউরুটি ত্বকের মৃত কোষ তুলে আনবে,মিল্ক ক্রিম ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করবে।

পেঁপে ও চন্দন গুড়া ঃ

উজ্জ্বল ও মসৃন দাগহীন ত্বক পেতে জুড়ি নেই পেঁপে ও চন্দন গুড়ার প্যাকের।

ব্যবহারবিধিঃ

এক চা চামচ চন্দন গুড়ার সাথে এক টেবিল চামচ স্ম্যাশড পেঁপে মিশিয়ে নিন। এবার এই প্যাক বিশ মিনিটের মতো মুখে লাগিয়ে রাখুন। এরপর হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

ত্বক ভালো রাখতে মনে রাখুনঃ

  • প্রচুর পরিমাণ পানি খান।
  • সূর্যের আলো যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন।
  • রেগুলার ফেস স্ক্রাব করুন।
  • পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমোন।
  • এক মেক-আপ মুখে তিন ঘন্টার বেশি রাখবেন না। মেক-আপ অবশ্যই ভালো করে তুলে আনুন।
  • ভালো মানের ফেসিয়াল প্রডাক্ট ব্যবহার করুন।

 

 

মন্তব্যসমূহ

বর্তমানে শিক্ষার্থী এছাড়া আর কিছু করছি না। সিলেটে থাকি। লেখালেখি আমার পুরাতন শখ। আর কখনোই এই শখ বাদ দিতে চাই না। এছাড়া বলার মতো আর কিছু আপাতত খুঁজে পাচ্ছি না।

মন্তব্য করুন