আমড়ার উপকারিতা

আমড়ার উপকারিতা

আমড়া আমাদের দেশি এক মৌসুমি ফল, যা টক স্বাদের হয়ে থাকে। এই আমড়া অনেক পুস্টিগুনসম্পন্ন। আমাদের দেশ ছাড়াও আশেপাশের কিছু দেশে আমড়া হয়ে থাকে। এই ফল বেশ কয়েকটা রঙের হয়ে থাকে- হলুদ, সবুজ, লাল ও কমলা রঙের। বাংলাদেশে সবুজ রঙের আমড়া হয়ে থাকে। আমাদের দেশে সাধারণত আমড়া লবন, মরিচ দিয়েই খাওয়া হয় বা কাসুন্দি দিয়ে বানিয়ে। আমড়া তরকারি হিসেবেও খাওয়া যায়। তবে আমড়ার খোসা দিয়েও কিন্তু আচার, হালুয়া হয়। আজ আমরা কথা বলব আমড়ার উপকারিতা নিয়ে।

আমড়ার নানাবিধ উপকারিতা

ভিটামিন ‘সি’তে ভরপুর

আমড়াতে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন ‘সি’ আছে, যা আমাদের জন্য প্রাকৃতিক অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। যা ত্বকের বলিরেখা দূর করতে সাহায্য করে। প্রতি ১০০ গ্রাম আমড়াতে ৪৬.৪ মিলিগ্রাম ভিটামিন ‘সি’ রয়েছে। যা আমাদের শরীরের প্রতিদিনের ভিটামিন ‘সি’র চাহিদার ৩৯%-৪৯% পূরন করে।

প্রচুর আয়রন

আমড়াতে বেশ ভাল পরিমানে আয়রনও আছে।আয়রন আমাদের পুরো শরীরের জন্য খুব দরকারি। হিমোগ্লোবিন ও মাইওগ্লোবিন উৎপাদনে আয়রন প্রয়োজন। হিমোগ্লোবিন আমাদের শরীরের লাল রক্ত কনিকা উৎপন্ন করে, এইজন্য আমাদের প্রতিদিনের দৈনিক পর্যাপ্ত পরিমান আয়রন গ্রহণ করা উচিত। প্রতি ১০০ গ্রাম আমড়াতে ২.৮ গ্রাম আয়রন আছে, যা আমাদের প্রতিদিনের আয়রনের চাহিদার ১৫.৫ -১৫% পূরণ করে থাকে।

হার্টের জন্য ভাল

২০১০ সালের “কার্ডিওভাসকুলার টক্সিকোলোলজি” নামক এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, আমড়া প্রাকৃতিকভাবে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে পরিপূর্ণ। আমড়া খেলে সামগ্রিক কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস করে এবং হৃদরোগের উপর তাদের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রভাব কম করে থাকে।

মুখে রুচি বৃদ্ধি করে

একটু টক স্বাদের ফল হওয়ায় আমড়া খেলে আমাদের মুখের রুচি বৃদ্ধি হতে সাহায্য করে। অনেক সময় জ্বর হলে মানুষের মুখের রুচি একদম কমে যায় এসময় আমড়া বা আমড়ার টক ঝোল খেলে রুচি ফিরে আসবে।

মন্তব্যসমূহ

নিজের পরিচয় দিতে গেলে সবার আগে বলব, আমি একজন মা। তার সাথে একজন হোমমেকার, শিক্ষক ও ব্লগার। লিখতে ভালবাসি। তার চাইতে ভালবাসি পড়তে, জানতে। এইতো! ছোট এক জীবনে অনেক কিছু, আলহামদুলিল্লাহ!!

১ টি মন্তব্য
  1. Reply আমড়ার খোসার আচার | চটপট - এসো নিজে করি আগস্ট ২৬, ২০১৮ তারিখে ১:২৪ পূর্বাহ্ন

    […] আগে জেনেছি। আমড়ার উপকারিতা নিয়ে পড়তে এখানে ক্লিক করুন।আজকে জেনে নিব কেমন করে আমড়ার ফেলনা […]

মন্তব্য করুন