চশমা কথন।

চশমা বা আইগ্লাস অনেকেরই নিত্যদিনের সঙ্গী। ক্ষনিকের জন্যই চশমা হাত ছাড়া হয়ে গেলে পড়তে হয় বিপদে।  তবে প্রিয় বা দরকারী যাই বলুন চশমার চাই একটু বাড়তি যত্ন। চশমা জড়িত কমন কিছু সমস্যা কিভাবে দূর করবেন তাই দেখে নিন আজ।

১ঃ স্ক্র‍্যাচ দূর করতেঃ

চশমায় স্ক্র‍্যাচ পড়া খুবই স্বাভাবিক একটা ব্যাপার হুটহাট করে আবার এ গ্লাস বদল করা কি সম্ভব? এক্ষেত্রে সমাধান কি? সমাধান হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন টুথপেস্ট। টুথপেস্ট মোবাইল ফোনের স্ক্র‍্যাচ বা চশমার স্ক্র‍্যাচ ঠিক করতে খুব ভালো কাজ করে। এজন্য, চশমার  গ্লাসে টুথপেস্ট লাগিয়ে একটা ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে নিন। এবার দেখুন তো স্ক্র‍্যাচগুলো কি আর তেমন একটা দেখা যাচ্ছে?

২ঃ গ্লাস স্লিপিং রোধে :

চশমা পড়া পর তা কি একটু ঢিলে মনে হচ্ছে?  বারবার নাক বেয়ে চশমা স্লিপ করলে বিরক্তির শেষ থাকেনা! চশমা যেনো গুরত্বপূর্ণ কাজের সময় বিরক্তির কারণ না হয় এজন্য, চশমার দু পাশে হেয়ার রাবার পিন আটকে দিন। গ্লাস আর স্লিপ করবেনা।

৩ঃ চশমার সাইড রাবার পড়ে গেলে ঃ

খেয়াল করে দেখবেন চশমার মধ্যবর্তী স্থানে নাক বরাবর রাবারের মতো দুটো অংশ থাকে। এদের একটি পড়ে গেলেই চশমা পড়া পর নাকে ব্যাথা লাগে৷ এ সমস্যার সমাধান আপনি নিজেই দু মিনিটে করতে পারবেন। গ্লু গান দিয়ে হুবুহু দেখতে রাবার বানিয়ে চশমার মাঝখানটায় লাগিয়ে নিন।ব্যস, সমাধান আপনার হাতেই!  দেখে আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন না যে রাবারটি গ্লু গান দিয়ে বানানো।

৪ঃ গ্লাসের ঝাপসা ভাব দূর করতেঃ

চশমার গ্লাসে অনেক সময় ঝাপসা ভাব দেখা দেয়। যার কারণে গ্লাস দিয়ে দেখতে অনেক সমস্যা হয়। অনেকে গ্লাস পরিষ্কার করতে গ্লাস পানি দিয়ে  ধুয়ে থাকেন।কিন্তু এতে উল্টো চশমাতে পানির দাগ পড়ে যায়৷ তাই খুব সহজে চশমার ঝাপসা ভাব দূর করতে ব্যবহার করুন সাবান। গ্লাসের উপর একটা শুষ্ক সাবান কিছুক্ষন ঘষে নিন। এরপর একটা ভেজা নরম কাপড় দিয়ে গ্লাস মুছে নিন। শুকানো পর গ্লাসে আর ঝাপসা ভাব থাকবে না ।

মনে রাখবেন, 

অন্তত প্রতি ছয়মাস অন্তর অন্তর ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চশমার ফ্রেম, গ্লাস পরিবর্তন করার চেষ্টা করুন।

নিত্যনতুন টুকটাক বিষয় জানতে সাথে থাকুন চটপটের।

 

 

 

মন্তব্যসমূহ

বর্তমানে শিক্ষার্থী এছাড়া আর কিছু করছি না। সিলেটে থাকি। লেখালেখি আমার পুরাতন শখ। আর কখনোই এই শখ বাদ দিতে চাই না। এছাড়া বলার মতো আর কিছু আপাতত খুঁজে পাচ্ছি না।

মন্তব্য করুন