আলু চানা চাট বানাবার স্বাস্থ্যকর উপায়

আলু চানা চাট বানাবার স্বাস্থ্যকর উপায়

আজ আমি আপনাদের সাথে খুবই মজাদার একটি স্ট্রিট ফুড এর রেসিপি শেয়ার করতে চলেছি। এই মজাদার রেসিপিটি হচ্ছে মজাদার ও ভিন্ন স্বাদ এর একটি খাবার আলু চানা চাট। আলু চানা চাট আমাদের দেশে অন্য একটি নামে পরিচিত। সেটি হচ্ছে আলু ছোলা চাট কিংবা ছোলার চটপটা। আসলে চানা শব্দটা আমাদের পাশের দেশ ভারতে ব্যবহার করা হয় ছোলা বোঝানোর জন্য। ভারতের খুব জনপ্রিয় একটি স্ট্রিট ফুড এই আলু চানা চাট। মধ্য প্রদেশ আর পশ্চিম বঙ্গের যে কোন এলাকায় রাস্তা ঘাটে যে সকল খাবার খুব বেশি বিক্রি হয় সেগুলোর মদ্যে অন্যতম হচ্ছে এই আলু চানা চাট। এটি এতই জনপ্রিয় যে আপনি যে কোন রাস্তায় এই আলু চানা চাট এর একটি স্টল ঠিকই দেখতে পাবেন। আজ আমি এই মজাদার আলু চানা চাট বানাবার একটি স্বাস্থ্যকর উপায় আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চলেছি।

আলু চানা চাট বানাবার অরিজনাল রেসিপি কিন্তু খুব বেশি স্বাস্থ্যকর না। এই আলু চানা চাট বানাবার জন্য বেশ কয়েক ধরণ এর চাটনি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এই চাটনি গুলো সাধারণত টক ও ঝাল স্বাদ এর সাথে সাথে মিষ্টি স্বাদও যোগ করে। এই মিষ্টি স্বাদ এর জন্য চাটনি গুলোতে বেশ কিছুটা পরিমাণে চিনি যোগ করা হয়ে থাকে। আর সাথে সাথে অরিজিনাল আলু চানা চাট বানাবার জন্য কিছুটা সরষের তেলও অনেক সময় ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এই দুটি উপকরণ এর কোণটিই কিন্তু শরীর এর জন্য খুব একটা ভাল নয়। অথচ এই আলু চানা চাটই যদি আপনি একটু অন্য ভাবে কিছু স্বাস্থ্যকর মশলা দিয়ে বানাতে পারেন, এটি কিন্তু খুব স্বাস্থ্যকর একটা নাস্তায় পরিণত হবে। এই যেমন টক স্বাদ এর জন্য লেবুর রস, তেঁতুল ব্যবহার করা যায়। আবার মিষ্টি স্বাদ এর জন্য চিনি জাতীয় কোন কিছুর বদলে সামান্য পরিমাণে মধু ব্যবহার করা যেতে পারে। আবার আপনি কিছু কাঁচা মরিচ কুচি ব্যবহার করতে পারেন ঝাল স্বাদ এর জন্য। এই ভাবে অনেক সহজ পদ্ধতিতে আপনি স্বাস্থ্যকর উপায়ে আলু চানা চাট বানিয়ে নিতে পারেন।

স্বাস্থ্যকর আলু চানা চাট বানাতে যে যে উপকরণ দরয়ার হবে

স্বাস্থ্যকর আলু চানা চাট বানাবার জন্য আমাদের খুব বেশি উপকরণ কিন্তু দরকার হবে না। এই আলু চানা চাট খুবই স্বাস্থ্যকর উপায়ে বানানো হবে। এই কারণে এই আলু চানা চাট খুব হালকা ভাবে বানানো হবে। তাই এটি বানাবার জন্য খুব অল্প সংখ্যক উপকরণ এর দরকার হবে। আর এই উপকরণ গুলো কিন্তু খুবই সাধারণ। আমরা আমাদের রোজ কার রান্না বান্না করার জন্য যে সকল উপকরণ ব্যবহার করি সেগুলোর মধ্যে থেকেই খুব সাধারণ উপকরণ ব্যবহার করে কিন্তু এই স্বাস্থ্যকর আলু চানা চাট বানিয়ে ফেলা সম্ভব। আর এই সব উপকরণ গুলোই প্রায় সব সময়েই আমাদের বাসাতেই থাকে। তাই আপনার যদি ইচ্ছা হয় তবে আজ বিকেলের নাস্তার জন্যই কিন্তু অতি সহজে এই স্বাস্থ্যকর উপায়ের আলুচানা চাট বানিয়ে নিতে পারবেন। আসুন আর কথা না বাড়িয়ে কি কি উপকরন ব্যবহার করে এই আলু চানা চাট বানাতে হবে তা জেনে নেই। সেই সাথে এই উপকরণ গুলো ঠিক কত টুকু পরিমাণে ব্যবহার করতে হবে তাও জেনে নেয়া যাক চলুন।

আলু মাঝারি সাইজ এর ১টি

ছোলা ১ কাপ

মিহি করে কুচি করে রাখা পেঁয়াজ ২ টেবিল চাওচ

মিহি করে কুচি করে রাখা টমেটো ৪ চা চামচ

মিহি করে কুচি করে রাখা শসা ৪ চা চামচ

মিহি করে কুচি করে রাখা কাঁচা মরিচ ২ চা চামচ

মিহি করে কুচি করে রাখা গাজর ২ চা চামচ

মিহি করে কুচি করে রাখা ধনে পাতা ১ চাচামচ

মিহি করে কুচি করে রাখা পুদিনা পাতা ২ চা চামচ

তেঁতুল এর রস ২ চা চামচ

লেবুর রস ৩ চা চামচ

লবণ পরিমাণ মত

বিট লবণ ১ চা চামচ

মধু ১/২ চা চামচ

কালো গোল মরিচ গুড়া ১ চা চামচ

ভাজা জিরা গুড়া ১ চা চামচ

ভাজা ধনে গুড়া ১/২ চা চামচ

ভাজা শুকনা মরিচ গুড়া ১/২ চা চামচ

স্বাস্থ্যকর আলু চানা চাট যে পদ্ধতিতে বানাতে হবে

আমার জানা মতে যত গুলো নাস্তা বানানো যায় যায় সেগুলোর মধ্যে অন্যতম সহজ একটি রেসিপি হচ্ছে এই স্বাস্থ্যকর আলু চানা চাট। এটি বানাতে সব মিলিয়ে চার মিনিট থেকে পাঁচ মিনিট সময় হয়ত আপনার লাগতে পারে। আর সব কিছু আগে থেকে রেডি করে রাখা থাকলে হয়র এর থেকেও কম সময় লাগবে। তবে এই আলু চানা চাট বানাবার আগে কিছু জিনিস রেডি করে নিতে হয়। যেমন আলু সিদ্ধ করে রাখা। কিংবা ছোলা ভিজিয়ে নরম করে রাখা। আবার ছোলা সিদ্ধ করে রাখা ইত্যাদি। তবে এই সব গুলো কাজই আগে থেকে করে রাখা যায়। তাই এই প্রিপারেশন এর ধাপ গুলো যদি আপনি আগে থেকে রেডি করী রাখতে পারেন তাহলে হয়ত মোটামুটি চোখের পলকেই এই আলু চানা চাট আপনি ঘরে বসেই রেডি করে নিতে পারবেন। আসুন দেরি না করে আলু চানা চাট বানাবার ধাপ গুলো সম্পর্কে ভাল ভাবে জেনে নেয়া যাক।

১ম ধাপ

এই রেসিপিটি রেডি করার জন্য আগে ছোলা রেডি করে নিতে হবে। কারণ এই কাজটি করার জন্যই সব থেকে বেশি সময় দরকার হবে। এই স্বাস্থ্যকর আলু চানা চাট বানাবার জন্য আপনি যে কোন ধরণ এর ছোলা ব্যবহার করতে পারবেন। আপনার ইচ্ছা হলে কাবলি ছোলা ব্যবহার করতে পারেন। আবার যদি ইচ্ছা হয় তবে সাধারণ ছোলা দিয়েও কিন্তু এই আলু চানা চাট বানিয়ে নেওয়া যায়। কোন ক্ষেত্রেই স্বাদ এর কমতি হবে না।

ছোলা খুব ভাল ভাবে পরিস্কার করে নিতে হবে। একটা পাত্রে বেশি করে পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখতে হবে অন্তত পাঁচ ঘন্টা থেকে ছয় ঘটার জন্য। এর পরে এটি ভাল করে সিদ্ধ করে নিতে হবে। ছোলা সিদ্ধ করার সময় পরিমাণ মত লবণ যোগ করতে হবে। ছোলা সিদ্ধ হয়ে গেলে বাড়তি পানি একটা ঝাঝরির সাহায্যে ঝরিয়ে নিতে হবে।

২য় ধাপ

এই বার আলু রেডি করে নিতে হবে। এই রেসিপির জন্য একটি বড় সাইজের কিং দুট মাঝারি সাইজের আলু নিতে হবে। আলু ভাল ভাবে পরিস্কার করে সিদ্ধ করে নিতে হবে। সিদ্ধ আলু থেকে খোসা ছাড়িয়ে নিয়ে ছোট ছোট কিউব আকারে কেটে নিতে হবে।

৩য় ধাপ

এই বার আলু চানা চাট রেডি করতে হবে। একটা বড় পাত্রে মিহি করে কুচি করে রাখা পেঁয়াজ, টমেটো, শসা, গাজর আর কাঁচা মরিচ নিতে হবে। সেই সাথে মিহি করে কুচি করে রাখা ধনে পাতা ও পুদিনা পাতাও নিয়ে নিতে হবে। এই কুচি করে রাখা উপকরণ গুলোর সাথে পরিমাণ মত লবণ ও বিট লবণ যোগ করতে হবে। হাত দিয়ে খুব ভাল করে মাখাতে হবে। এতে করে কুচি করে রাখা মশলা গুলো থেকে পানি ছেড়ে দেয়া শুরু করবে।

এর পরে এই মশলার মিশ্রণে তেঁতুল এর রস, লেবুর রস ও মধু যোগ করতে হবে। সেই সাথে ভাজা জিরা গুড়া, ভাজা ধনে গুড়া, ভাজা কালো গোল মরিচ গুড়া ও ভাজা লাল মরিচ গুড়া যোগ করতে হবে। হালকা করে সব উপকরণ গুলো মেখে নিতে হবে। রেডি স্বস্থ্যকর আলু চানা চাটের জন্য স্বাস্থ্যকর ড্রেসিং।

৪র্থ ধাপ

এই বার এই রেডি করে রাখা টক, ঝাল, মিষ্টি ড্রেসিং এর মধ্যে আগে থেকে সিদ্ধ করে টকরা করে রাখা আলু যোগ করতে হবে। সেই সাথে যোগ করতে হবে সিদ্ধ করে রাখা ছোলা। হালকা করে একতা চামচ দিয়ে সব উপকরণ এক সাথে ভাল ভাবে মেখে নিতে হবে। এই সময় খুব জোরে জোরে নাড়া চাড়া করে মাখাতে যাবেন না সব কিছু। আলু ও ছোলা সিদ্ধ থাকার কারণে কিছুটা নরম থাকে। এই উপকরণ দুটী ভেঙ্গে গেলে আলু চানা চাটের মদ্ধ্যে ভর্তা ভর্তা ভাব চলে আসবে। তখন কিন্তু খেতে খুব একটা ভাল লাগবে না। আর দেখতেও ভাল লাগবে না। এই কারণে হালকা করে সব উপকরণ এর মিশ্রণের সাথে আলু ও ছোলা সিদ্ধ মেখে নিতে হবে। তবে খেয়াল রাখতে হবে সব টুকু আলু ও ছোলা সিদ্ধর সাথে যেন ড্রেসিং খুব ভাল ভাবে মেখে যায়। ব্যাস রেডি অতি মজার আলু চানা চাট।

এই স্বাস্থ্যকর আলু চানা চাট খাওয়ার ঠিক আগে আগেই বানাতে হবে। আপনি যদি অনেক আগে এটি বানিয়ে রেখে দেন তাহলে কিন্তু এর উপকরণ গুলো থেকে পানি ছেড়ে দেয়া শুরু করবে। তখন কিন্তু এটি খেতে অত বেশি ভাল লাগবে না। তাই বিকেলে চা বানাবার আগে ঝটপট বানিয়ে নিন এই মজাদার কিন্তু স্বাস্থ্যকর আলু চানা চাট। আর চটপট বসে পড়ুন প্রিয় জনদের সাথে জমপেশ আড্ডায়।

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

মন্তব্য করুন