সহজেই তৈরি অ্যান্টি রিংকেল ক্রিম

সহজেই তৈরি অ্যান্টি রিংকেল ক্রিম

বয়স হলে চেহারায় সেটার ছাপ পড়বে এটাই প্রকৃতির নিয়ম তা আমরা সবাই জানি। বয়স ত্রিশের পর থেকেই ত্বকে শুরু হয়ে যায় বলিরেখা পরা। এই বয়সের ছাপকে দূরে রাখতে কত কিছুই না করা হয়। পার্লারে হাই পাওয়ারের ফেসিয়াল, নানান রকমের নামী-দামী অ্যান্টি রিংকেল ক্রিমের ব্যবহার, আরো কত রকম ত্বকচর্চা। এবার নাহয় ঘরে বসেই হোক কিছুটা ত্বকের যত্ন। নাহয় ঘরেই তৈরি করে নিন বলিরেখা দূর করার বিশেষ একটি অ্যান্টি রিংকেল ক্রিম। ডিম, আমন্ড অয়েল, মধু ইত্যাদি প্রাকৃতিক উপাদান থেকে তৈরি হয় বলে শতভাগ নিরাপদ এই ক্রিম। ক্রিমটি নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক থাকবে টানটান ও মসৃণ। আয়নায় নিজেকে দেখে মনে হবে অনেকগুলো বছর তরুণ। আসুন, জানি সেই ক্রিম তৈরির পদ্ধতি-

ক্রিমটি তৈরি করতে যা যা উপকরণ লাগবে চলুন জেনে নিইঃ

  • ১ টি ডিমের কুসুম(দেশি মুরগির ডিম হলে খুব ভালো)
  • ২ টেবিল চামচ কাঠ বাদাম তেল (almond oil)
  • ১/২ টেবিল চামচ মধু
  • ৩ টেবিল চামচ মেডিকেল ভ্যাসেলিন (বড় ফার্মেসি বা মেডিকেল স্টোরে খোঁজ করলেই পাবেন)
  • খাঁটি গোলাপ জল ১ টেবিল চামচ

বিঃদ্রঃ প্রত্যেকটা উপাদান সঠিক মাপে নেবেন। পরিমাণটা এখানে খুবই জরুরী

প্রস্তুত প্রণালীঃ প্রথমেই একটি হাঁড়িতে পানি ফুটতে দিন। পানি ভালো করে ফুটে উঠলে চুলা থেকে নামিয়ে নিয়ে হাঁড়ির মুখে একটি স্টিলের পাত্র বসান। এবার স্টিলের সেই পাত্রের মাঝে ভ্যাসেলিন দিন। (সরাসরি চুলার তাপে দিবেন না। তাই এই ডাবল বয়লার পদ্ধতির ব্যাবস্থা) অনবরত নেড়ে নেড়ে তাপে ভ্যাসেলিন গলিয়ে নিন, সহজেই কয়েক মিনিটের মাঝে গলে যাবে। এবার পাত্রটি নামিয়ে তাতে অন্যান্য সকল উপাদান মিশিয়ে নিন ভালভাবে। খুব ভালো ভাবে নাড়ুন যতক্ষণ পর্যন্ত না মোলায়েম ক্রিম তৈরি হয়। ক্রিম ঠাণ্ডা হলে পরিষ্কার পাত্রে ভরে ফ্রিজে নরমাল চেম্বারে রাখুন।

ব্যবহারঃ রাতে ঘুমাতে যাওয়ার ঘণ্টা দুয়েক আগে মুখ ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিবেন। মুখ পরিষ্কারের জন্য মাইল্ড সাবান বা ফেসওয়াস ব্যবহার করুন। ত্বকচর্চার জন্য তীব্র ক্ষার যুক্ত সাবান এড়িয়ে চলুন যতটা সম্ভব। তারপর পরিষ্কার মুখে ক্রিমটি লাগান। অল্প কিছুটা ক্রিম নিয়ে আলতো হাতে মুখে ম্যাসাজ করুন ৫ মিনিট। তারপর ৩০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। ৩০ মিনিট পর ভেজা তুলো দিয়ে মুখ ভালো করে মুছে নিবেন। এরপর আর সকাল পর্যন্ত মুখ ধোবেন না বা মুখে কিছু মাখবেন না। সকালে ঘুম থেক উঠে পুনরায় ত্বক পরিষ্কার করে নিবেন।

বিশেষ সতর্কতাঃ

  • ক্রিম অবশ্যই ফ্রিজে রাখতে হবে।
  • ধাতব বক্সে সংরক্ষন করবেন না। প্লাস্টিক বা কাচের কৌটা ব্যবহার করুন এজন্য।
  • যে পরিমাণ দেয়া আছে , একবারে সেই পরিমাণ ক্রিমই তৈরি করবেন।

তো দেরি না করে এখনই বানিয়ে ফেলুন। জানাতে ভুলবেন না যেন ব্যবহার করে।

মন্তব্যসমূহ

হ্যান্ডিক্রাফটের কাজের প্রতি অগাধ ভালবাসা।প্রচুর ক্রাফটিং করি। আর বিউটি নিয়েও একটু ঘাটাঘাটি করি তাই ক্রাফট এন্ড বিউটি নিয়েই টুকটাক লিখার চেষ্টা করি।

মন্তব্য করুন