ভিন্ন স্বাদের ও মজাদার বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক

ভিন্ন স্বাদের ও মজাদার বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক

আমাদের দেশে প্যানকেক এখন অন্যতম জনপ্রিয় একটি খাবার এর নাম। ছোট বড় সকলেই কিন্তু এই প্যানকেক নামক খাবারটি খুব পছন্দ করেই খেয়ে থাকেন। যদিও এই খাবারটি কিন্তু আমাদের দেশিয় কোন খাবার নয়। মূলত পশ্চিমা একটি খাবার এর নাম এই প্যানকেক। কিন্তু ইন্টারনেট আর টিভির কল্যাণে বাংলাদেশ এর ঘরে ঘরে এখন অতি পরিচিত একটি নাম এই প্যানকেক। বিভিন্ন হোটেল কিংবা রেস্টুরেন্টে এখন প্রায় সব সময়ই প্যানকেক কিনতে পাওয়া যায়। আর এই সব রেস্টুরেন্ট গুলোর জনপ্রিয় খাবার গুলোর মধ্য এই প্যানকেকের নাম এসেই যায়। এই জনপ্রিয় খাবারটি কিন্তু বানানো খুব একটা কঠিন কিছু না। এর রেসিপি কিন্তু যথেষ্ঠ সহজ। ইচ্ছা হলেই আপনি আপনার রান্না ঘরে বসেই এই প্যানকেক বানিয়ে নিতে পারবেন। এই প্যানকেক বানানো যেম্ন সহজ, তেমনি এটি বানাতে সময় এর দরকারও হয় অনেক কম। তাই বাসায় বসে কম সময়ে কোন মজার খাবার বানাতে ইচ্ছা হলে প্যানকেক খুব ভাল একটি অপশন হতে পারে। আজ আমি আপনাদের বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক বানানো শেখাব।

আমরা সাধারণত হোটেল কিংবা রেস্টুরেন্টে যে সকল প্যানকেক খেয়ে থাকি, সেগুলো মূলত মিষ্টি স্বাদ এর হয়ে থাকে। বিভিন্ন ধরণ এর সুগার সিরাপ কিংবা মধু দিয়ে সাধারণত এই প্যানকেক গুলো বানানো হয়ে থাকে। আবার অনেক সময় বিভিন্ন লেয়ার এর প্যানকেক সার্ভ করা হয়ে থাকে। তবে প্রায় সব ক্ষেত্রেই দেখা যায় যে আমরা সব জায়গাতেই প্রায় মিষ্টি স্বাদ এর প্যানকেকই পেয়ে থাকি। কিন্তু আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা প্যানকেক খেতে পছন্দ করলেও মিষ্টি খুব বেশি একটা খেতে পারেন না। ফলে ইচ্ছা থাকলেও তাদেরকে পরিমাণে অল্প করে প্যানকেক খেতে হয়। অনেকে আবার দেখা যায় ডায়াবেটিস কিংবা অন্যান্য সুগার জনিত রোগে ভুগে থাকেন। সেক্ষেত্রেও মনে মনে ইচ্ছা থাকলেও এই মজার খাবারটা তারা খেতে পারেন না। অনেকে আবার এমনিতেই ঝাল জাতিয় খাবার মিষ্টি হেকে বেশি পছন্দ করে থাকেন। এই সব ক্ষেত্রে আমার আজকের রেসিপি আপনাদের অনেক কাজে লাগতে পারে। কারণ আজ আমি আপনাদের বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক বানানো শেখাব যেটা এই প্যানকেকের একই ঝাল স্বরূপ।

বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক বানাবার জন্য যে যে উপকরণ দরকার হবে

বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক বানাবার জন্য আমাদের খুব বেশি কোন উপকরণ দরকার হবে না। যদিও প্যানকেক একটি বিদেশি খাবার। এবং এটি বানাতে ভীনদেশি কিছু উপকরণ আমাদের দরকার হয়। কিন্তু এই বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক বানাবার জন্য আমি কোন ধরণ এর ভীন দেশি উপকরণ ব্যবহার করিনি। বরং আমাদের হাতের কাছে থাকা দেশিয় সব উপকরণ ব্যবহার করেই কিন্তু এই বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক বানানো হয়ে থাকে। আমার আজকের এই প্যানকেক রেসিপিকে আপনারা তাই দেশি স্টাইলের ঝাল প্যানকেকও বলতে পারেন। আসুন কি কি উপকরণ ব্যবহার করে অতি অল্প সময়ে এই বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক বানাতে হবে তা এক এক করে জেনে নেয়া যাক। সেই সাথে এই উপকরণ গুলো ঠিক কত টুকু পরিমাণে ব্যবহার করতে হবে তাও জেনে নেই চলুন।

বেসন ১/৪ কাপ                                 

সুজি ১/২ কাপ

লবণ পরিমাণ মত

পানি পরিমাণ মত

টক দই ১/৪ কাপ

মিহি করে কুচি করে রাখা ক্যাপসিকাম ১/৪ কাপ

মিহি করে কুচি করে রাখা পেঁয়াজ ২ টেবিল চামচ

মিহি করে কুচি করে রাখা কাঁচা মরিচ ৩ চা চামচ

মিহি করে কুচি করে রাখা ধনে পাতা ১ চা চামচ

মিহি করে কুচি করে রাখা পুদিনা পাতা ১ চা চামচ

আদা বাটা ১/২ চা চামচ

রসুন বাটা ১/২ চা চামচ

হলুদ গুড়া ১/২ চা চামচ

লাল মরিচ গুড়া ১/২ চ চামচ

ভাজা জিরা গুড়া ১ চা চামচ

ভাজা ধনে গুড়া ১/২ চা চামচ

ভাজা গরম মশলা গুড়া ১ চা চামচ

সাদা তেল সামান্য পরিমাণে

চিনি ১/২ চা চামচ

বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক যে পদ্ধতিতে বানাতে হবে

বেসন সুজির প্যানকেক বানানো খুবই সহজ। এবং এই রেসিপিটি বানাতে সময়ও খুব কম দরকার হয়। বাসায় হটাত করে কোন মেহমান এসে গেলে কিংবা বাচ্চারা হটাত করে কোন নাস্তা খাওয়ার বায়না ধরলে আপনি কিন্তু এই খাবারটি অনায়াসে বানিয়ে দিতে পারবেন। তবে সময় যতই লাগুক না কেন, এই প্যানকেক বানাবার জন্য ছোট ছোট কিছু বিষয় একটু খেয়াল রাখতে হয়। তা না হলে এই ঝাল প্যানকেকের অধ্যে সেই রকম স্বাদ আসে না যেটা আসলে আসার কথা। এই ছোট ছোট বিষয় গুলো খেয়াল রেখে আপনি যদি ধাপে ধাপে এই বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক তৈরী করতে পারেন তবে খুব সহজেই কোন রকম এর ঝামেলা ছাড়াই আপনি খুব সহজে এই রেসিপিটি তোইরী করে ফেলতে পারবেন। আসুন তাহলে কোন কোন ধাপ অনুসরণ করে এবং কি কি পদ্ধতিতে এই বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক ঘরে বসে সহজেই বানানো যায় তা দেখে নেয়া যাক।

১ম ধাপ

এই বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক বানাবার জন্য প্রথমেই আমাদেরকে বেসন আর সুজি রেডি করে নিতে হবে। এর জন্য আগে একটা শুকনা ফ্রাইং প্যান নিতে হবে। এই শুকনা ফ্রাইং প্যানে প্রথমে সুজি হালকা করে শুকনা শকনা ভেজে নিতে হবে। খুব বেশি সময় নিয়ে ভাজার দরকার নেই। চার মিনিট থেকে পাঁচ মিনিট সময় নিয়ে ভাজলেই হবে। এর পরে একই ভাবে বেসনও শুকনা শুকনা করেভেজে নিতে হবে। সুজি ভাজতে যেই সময় লেগেছে বেসন প্রায় একই সময় নিয়ে ভেজে ইতে হবে। তবে এই সুজি ও বেসন ভাজার সময় একটা ব্যাপারে খুব খেয়াল রাখতে হবে। এই সময়ে একদম কম আঁচে সুজি ও বেসন ভেজে নিতে হবে। আর বেসন ও সুজি শুকনো খোলায় ভাজার সময় অনবরত খুনতি দিয়ে নাড়া চাড়া করতে হবে। তা না হলে এই উপকরণ দুটি একদম গুড়া হবার জন্য খুব দ্রুত কিছু বুঝে ওঠার আগেই পুড়ে যেতে পারে।

২য় ধাপ

এই বার একটু অপেক্ষা করতে হবে যাতে করে ভেজে নেয়া সুজি ও বেসন ঠান্ডা হবার জন্য। খুব বেশি সময় অপেক্ষা করার দরকার নেই। মোটামুটি দশ মিনিট থেকে পনেরো মিনিট অপেক্ষা করলেই হবে। এই বার এই দুটো উপকরণ একটা পাত্রে নিতে হবে। এর সাথে মিশিয়ে নিতে হবে টক দই আর অল্প লবণ। এর পরে অল্প অল্প করে পানি যোগ করতে হবে। আর ভাল করে হ্যান্ড হুইস্ক দিয়ে বিট করতে হবে। এই সময়ে একটা বিষয় খুব খেয়াল করতে হবে। সেটা হচ্ছে সুজি আর বেসন খুব দ্রুত লাম্পস পেকে যাবার সম্ভাবনা থাকে। তাই অবশ্যই খুব ভাল করে বিট করতে হবে যাতে কোন রকম লামপ্স না থাকে। একটু পাতলা করে ব্যাটার বানাতে হবে। এই ব্যাটার বানিয়ে ঢাকনা দিয়ে কিছু সময় ঢেকে রাখতে হবে। এতে সুজি আর বেসন পানি টেনে একটু ফুলে উঠবে।

৩য় ধাপ

এই বার আর একটি পাত্রে একে একে মিহি করে কুচি করে রাখা ক্যাপসিক্ম, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ, ধনে পাতা আর পুদিনা পাতা নিতে হবে। সেই সাথে অল্প করে লবণ, চিনি ভাজা জিরা গুড়া, ভাজা ধনে গুড়া, কালো গোল মরিচ গুড়া, ভাজা গরম মশলা গুড়া, লাল মরিচ গুড়া, আর হলুদ গুড়া যোগ করতে হবে। সেই সাথে রসুন বাটা ও আদা বাটা যোগ করে দিতে হবে। খুব ভাল করে মেখে নিতে হবে। দুই মিনিট থেকে তিন মিনিট মেখে নিতে হবে। এতে করে মিহি করে কুচি করে রাখা উপকরণ গুলো থেকে একটু পানি ছেড়ে দিতে হবে। সেই সাথে সব গুলো মশলা এক সাথে মিশে যাবে।

৪র্থ ধাপ

এই বার আগে থেকে মেখে রাখা বেসন আর সুজির মিক্স এর মধ্যে মেখে নেয়া মশলা মিশ্রণ যোগ করে দিতে হবে। খুব ভাল করে ফেটে মেখে নিতে হবে। রেডি বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক বানাবার জন্য ব্যাটার।

৫ম ধাপ

একটা সয়ান ফ্রাইং প্যানে অল্প করে সাদা তেল ব্রাশ করে নিতে হবে। এর উপর অল্প করে ব্যাটার নিয়ে প্যানকেক এর মত করে ছড়িয়ে দিতে হবে। ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। দুই মিনিট থেকে তিন মিনিট কম আঁচে রান্না করতে হবে। এর পরে ঢাকনা খুলে প্যানকেক উলটে দিতে হবে। একই ভাবে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে আরো দুই মিনিট থেকে তিন মিনিট রান্না করতে হবে কম আঁচে। ব্যাস বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক রেডি। এই বার কোন টমেটো সস কিংবা গ্রীণ সস দিয়ে সাজিয়ে সার্ভ করতে হবে মজাদার ও ভিন্ন স্বাদ এর বেসন সুজির ঝাল প্যানকেক। সকালে নাস্তা কিংবা বিকেলের চা বা কফির সাথে একদম জমে যাবে।

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

মন্তব্য করুন