এই গরমে প্রাণ জুড়ানো ঠান্ডা আনারসের শরবত রেসিপি

এই গরমে প্রাণ জুড়ানো ঠান্ডা আনারসের শরবত রেসিপি

এখন গরমের শেষ আর বর্ষার শুরু। আমাদের দেশে বছরের এই সময়টাতে দুর্বিষহ গরম পরে। আর এই বছর যেন সেই গরমের পরিমাণ দুর্বিষহ পরিমাণের মাত্রাকেও ছাড়িয়ে গেছে। এই সময়টাতে কোন খাবারই যেন খেতে ইচ্ছা করে না।কোন খাবারেই যেন কোন স্বাদ পাওয়া যায় না। শুধু ঠান্ডা ঠান্ডা এক গ্লাস শরবত চোখের সামনে আসলেই যেন এই সময়টাতে একটু প্রশান্তির ছোয়া পাওয়া যায়। মনে হয় যেন এক চুমুকেই সব টুকু শরবত শেষ করে এই তোব্র গরমে একটু প্রশান্তির ছোয়া গ্রহণ করি। এই তীব্র গরম এর সময়ে আল্লাহর নিয়ামত হিসেবে বাজারে নানান রকম এর ফল মূল পাওয়া যায় যেগুলো খেলে আমাদের শরীর গরমকে মোকাবেলা করতে যথেষ্ঠ শক্তি পেতে পারে। আর এই ফল দিয়ে যদি নানান রকম এর শরবত ঘরে বসেই বানিয়ে নেয়া যায় তাহলে তো কথাই নেই। আজ আমি তাই গুমের একটি অতি জনপ্রিয় ফল দিয়ে কিভাবে বাসায় বসেই মজাদার একটি আনারসের শরবত বানানো যায় সেই রেসিপিই আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

গরমের সময়ে পাওয়া যায় এরকম খুব ভাল একটি ফল হচ্ছে আনারস। এই ফলটি যেমন সুস্বাদু তেমনি পুষ্টি কর। বিশেষ করে এখন গরম এর সময় যে সমস্ত খুব সাধারণ রোগ হয় সেগুলো প্রতিরোধ করার জন্য আনারস খুব ভাল কাজ করতে পারে। এটি আমাদের শরীর ঠান্ডা রাখতে অনেক সাহায্য করে থাকে। সেই সাথে জ্বর, সর্দি কিংবা কাশির মত সাধারণ অথচ কষ্টকর রোগ গুলি থেকে আমাদের রক্ষা করে থাকে। এই ফলটি যদিও অনেক সুস্বাদু, তবে আমাদের মধ্যে অনেকেই হয়ত আছেন যারা এই সুস্বদু আনারস খেতে খব একটা পছন্দ করেন না। আর বাচ্চাদের ক্ষেত্রে এই কথাটি বিশেষ ভাবে সত্য। তাই যদি একটু অন্য ভাবে আনারস খাওয়া যায় তাহলে কোন ক্ষতির কারণ নেই। বিশেষ করে শরবত আকারে যদি এই মজাদার ফলটি পরিবেশন করা যায় তবে সকলেই এটি বেশ মজা করেই খেয়ে নেবে। আর শরবতের টক মিষ্টি স্বাদ এর জন্য বাচ্চারাও কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই এটি খেয়ে নেবে। চলুন তবে মজাদার এই আনারসের শরবত বানানো দেখে নেয়া যাক।

আনারসের শরবত বানাবার জন্য যে যে উপকরণ দরকার হবে

আনারসের শরবত বানাবার জন্য আমাদের খুব বেশি উপকরণ এর দরকার হবে না। খুব অল্প কিছু উপকরণ দিয়েই মজাদার টক মিষ্টি আনারসের শরবত খুব অল্প সময় এর মধ্যে বানিয়ে নেয়া যেতে পারে। আর এই উপকরণ গুলোও খুবই সাধারণ। হয়ত এখন আমাদের সবার বাসায়ই রান্না ঘর এর এক কোণায় কিংবা ফ্রিজের কোন একটা তাকে এই উপকরণ গুলো পাওয়া যেতে পারে। আর যদি এই উপকরণ গুলোর কোন একটি এই মুহুর্তে আপনার বাসায় নাও থেকে থাকে, তবুও কোন সমস্যা নেই। আপনার বাসার আশে পাশে এর যে কোন দোকানে আপনি খুব সহজেই এই উপকরণ গুলি খুজে পাবেন। তাই দেরি না করে আসুন কি কি উপকরণ ব্যবহার করে এই আনারসের শরবত বানাতে হবে তাদেখে নেয়া যাক। সেই সাথে এই উপকরণ গুলি আসলে কত টুকু পরিমাণে ব্যবহার করতে হবে তাও জেনে নেই চলুন।

আনারস কুচি ১ কাপ

আদা কুচি ২ টেবিল চামচ

লবণ ১/২ চা চামচ

চিনি ১/২ কাপ

বিট লবণ ১ চা চামচ

পানি ১ কাপ

মিহি করে কুচি করে রাখা পুদিনা পাতা ২ টেবিল চামচ

মিহি করে কুচি করে রাখা ধনে পাতা ১ চা চামচ

ভাজা জিরা গুড়া ১ চা চামচ

ভাজা গোল মরিচ গুড়া ১ চা চামচ

বরফ পরিমাণ মত

মিহি করে কুচি করে রাখা কাঁচা মরিচ ১/৪ চা চামচ

আনারসের শরবত যে পদ্ধতিতে বানাতে হবে

আনারসের শরবত বানাবার পদ্ধতি অত্যন্ত সহজ। এবং সেই সঙ্গে খুব কম সময়ে লাগে এই শরবতটি বাসায় বসে বানাবার জন্য। আপনি যদি আগে থেকে সব কিছু কেটে কুটে রেডি করে রেখে দেন তবে সব মিলিয়ে দুই মিনিট থেকে তিন মিনিট সময় লাগতে পারে এই আনারসের শরবত বানাবার জন্য। আর উপকরণ যেহেতু খুব বেশি না। তাই এই উপকরণ গুলো কেটে কুটে রেডি করতেও খুব বেশি সময় আমাদের দরকার হবে না। সব কিছু কেটে রেডি করার জন্য আমাদের সর্বোচ্চ চার মিনিট থেকে পাঁচ মিনিট সময় লাগতে পারে। কাজেই আপনি যদি এই আনারসের শরবত বানাতে চান ঘরে বসে তাহলে আপনার সর্বোচ্চ দশ মিনিট সময় এর দরকার হবে। কাজেই বুঝতেই পারছেন কতটা ঝটপট এই আনারসের শরবত ঘরে বসে বানিয়ে নেয়া যেতে পারে।

আসলে আমরা সকলেই সব সময় ঝটপট রেসিপি খুজে থাকি। আর এই আনারসের শরবত এর মত ঝটপট রেসিপি আপনি খুব কমই খুজে পাবেন। তীব্র গরমের অধ্যে হতাত করে যদি রিফ্রেশিং কিছু খেতে ইচ্ছা করে তাহলে এই আনারসের শরবত আপনার জন্য হতে পারফেক্ট একটি অপ্পশন। শুধু মাত্র সব রকম এর উপকরণ এক সাথে মিশিয়ে নিতে হবে। এবং ব্লেন্ডারে খুব ভাল করে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। ব্যাস রেডি আপনাদের জন্য মজাদার আনারসের শরবত। আসুন কি কি ধাপ অনুসরণ করে এই আনারসের শরবত ঘরে বসে অতি সহজে ও একদমই কম সময়ে বানিয়ে নেয়া যায় তা দেখে নেয়া যাক।

১ম ধাপ

প্রথমেই আনারস গুলো খুব সুন্দর করে ছোট ছোট করে কুচি করে কেটে নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন আনারসের খোসার কোন শক্ত অংশ যে আনারসের গায়ে লেগে না থাকে। আনারসের শরবত খাওয়ার সময় এই শক্ত খোসার অংশ মুখে পড়লে খেতে খুবই খারাপ লাগে। তাই খুব সাবধানে আনারসের খোসা ছাড়িয়ে ছোট ছোট টুকরা করে কেটে নিতে হবে।

২য় ধাপ

এই বার একটা ব্লেন্ডারে ছোট ছোট করে কেটে রাখা আনারস এর টুকরা গুলা নিয়ে নিতে হবে। সেই সাথে যোগ করতে হবে আদা কুচি, চিনি, লবণ আর বিট লবণ। এই একই সময়ে ভাজা জিরা গুড়া আর ভাজা কালো গোল অরিচ গুড়াও যোগ করে দিতে হবে। এই বার এই মিশ্রণ এর মধ্যে মিহি করে কুচি করে রাখা ধনে পাতা, পুদিনা পাতা আর কাঁচা মরিচ যোগ করে দিতে হবে। তবে আপনি যদি বাচ্চাদের জন্য এই আনারসের শরবত বানিয়ে থাকেন তবে কাঁচা মরিচ বাদ দিয়ে করলেই বেশি ভাল হবে। এই বার সামান্য একটু পানি যোগ করতে হবে। এবং সব উপকরণ খুব ভাল করে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। াসলে শুরুতেই সব পানি যোগ করে দিলে আনারস আর আদা স্মুথ ভাবে ব্লেন্ড হবে না। একটু দানা দানা থেকে যেতে পারে। তাই শুরুতেই অল্প পানি দিয়ে স্মুথ ভাবে সব কিছু ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এর পরে বাকি পানি দিয়ে আবারো সব উপকরণ এক সাথে ব্লেন্দ করে নিতে হবে। ব্যাস রেদি মজাদার আনারসের শরবত। পরিবেশন করার সময় উপর থেকে একটু বরফ কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন ক

মন্তব্যসমূহ

আমি সাদিয়া রিফাত ইসলাম। একজন মা , হোমমেকার এবং ব্লগার। ভালভাসি রান্না করতে, বই পড়তে এবং লেখালেখি করতে।

মন্তব্য করুন